kalerkantho

২০০৪ কর্মী নিয়োগ দেবে টিএমএসএস

ঋণ কার্যক্রমের বিভিন্ন কর্মসূচিতে ১২টি পদে ২০০৪ কর্মী নিয়োগ দেবে বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা টিএমএসএস। ২৮ ফেব্রুয়ারি জাতীয় দৈনিকে এই নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হয়েছে। খোঁজখবর নিয়ে জানাচ্ছেন হোসেন ফরহাদ

১৩ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ৫ মিনিটে



২০০৪ কর্মী নিয়োগ দেবে টিএমএসএস

পদ ও যোগ্যতা

টিএমএসএসের বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, সহকারী পরিচালক (হিসাব) পদে নিয়োগ পাবে ৩ জন। যোগ্যতা-হিসাববিজ্ঞান/ফিন্যান্সে স্নাতকোত্তর বা এমবিএসহ হিসাব ব্যবস্থাপনায় কমপক্ষে ৫ বছরের অভিজ্ঞতা। এরিয়া ম্যানেজার (মাইক্রোফিন্যান্স) দরকার ২০ জন। ৩ বছরের অভিজ্ঞতাসহ স্নাতকোত্তর। হিসাব কর্মকর্তা ২০ জন। হিসাববিজ্ঞানে সম্মানসহ স্নাতকোত্তর এবং ৩ বছরের অভিজ্ঞতা। মনিটরিং কর্মকর্তা দরকার ২০ জন। যোগ্যতা ৩ বছরের অভিজ্ঞতাসহ স্নাতকোত্তর। ওই ৪ পদের প্রার্থীর বয়স সর্বোচ্চ ৪০ বছর। মামলা মনিটরিং কর্মকর্তা ৬ জন। আইন বিষয়ে স্নাতক বা যেকোনো বিষয়ে স্নাতকোত্তর এবং মামলা পরিচালনায় ৩ বছরের অভিজ্ঞতা। বয়স ৩৫ বছর। কোয়ালিটি ইম্প্রুভমেন্ট অফিসার ৩০ জন। যোগ্যতা স্নাতকোত্তর। বয়স ৪০ বছর। ব্রাঞ্চ ম্যানেজার (মাইক্রোফিন্যান্স) দরকার ২০০ জন। ৩ বছরের অভিজ্ঞতাসহ স্নাতকোত্তর ডিগ্রি। শাখা হিসাবরক্ষক কাম কম্পিউটার অপারেটর (মাইক্রোফিন্যান্স) নিয়োগ পাবে ৩০০ জন। যোগ্যতা বাণিজ্যে স্নাতক। সিনিয়র সুপারভাইজার (মাইক্রোফিন্যান্স) ৪০০ জন। যোগ্যতা স্নাতকোত্তর এবং ৩ বছরের অভিজ্ঞতা। ১০০০ ফিল্ড সুপারভাইজার নেওয়া হবে। স্নাতক পাস হলেই করা যাবে আবেদন। উদ্যোগ উন্নয়ন কর্মকর্তা ৪ জন। কৃষি বিষয়ে ডিপ্লোমা। সমৃদ্ধি এমআইএস কর্মকর্তা ১ জনের যোগ্যতা স্নাতক। ‘ব্রাঞ্চ ম্যানেজার’ থেকে ‘সমৃদ্ধি এমআইএস কর্মকর্তা’ পর্যন্ত পদে আবেদনের প্রার্থীর বয়স সর্বোচ্চ ৩৫ বছর। সব পদে কাজ জানা প্রার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

 

আবেদন যেভাবে

‘পরিচালক (এইচআর-এম অ্যান্ড অ্যাডমিন), টিএমএসএস’ বরাবরে আবেদন পাঠাতে হবে ২৭ মার্চের মধ্যে। প্রথম ১০ পদের আবেদন প্রধান কার্যালয়ের ঠিকানায় (টিএমএসএস ভবন, ৬৩১/৫, পশ্চিম কাজীপাড়া, মিরপুর-১০, ঢাকা-১২১৬) কিংবা যেকোনো বিভাগীয়/জোন অফিসের ঠিকানায় পাঠানো যাবে। ১১ ও ১২ নম্বর পদের আবেদন পাঠাতে হবে মৌলভীবাজার জোন কিংবা সিলেট ডিভিশনাল অফিসের ঠিকানায়।

আবেদনপত্রের সঙ্গে তিন কপি পাসপোর্ট সাইজের সত্যায়িত রঙিন ছবি, সব শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ, অভিজ্ঞতার সনদ, জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি, মোবাইল নম্বর, ই-মেইল ঠিকানাসহ পূর্ণাঙ্গ জীবনবৃত্তান্ত সংযুক্ত করতে হবে। নির্বাচনী পরীক্ষার ফি বাবদ সব পদের জন্য ৩০০ টাকা এবং ১০ টাকার মানি রিসিট সংস্থার যেকোনো শাখা থেকে বা তফসিলভুক্ত যেকোনো ব্যাংক থেকে টিএমএসএস শিরোনামে পে-অর্ডার বা ব্যাংক ড্রাফট করে আবেদনের সঙ্গে সংযুক্ত করতে হবে। খামের ওপরে পদের নাম উল্লেখ করতে হবে। আবেদন পাঠানোর ঠিকানাসহ বিস্তারিত পাওয়া যাবে প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তিতে।

 

পরীক্ষার বিষয়াদি

টিএমএসএসের পরিচালক (এইচআরএম অ্যান্ড অ্যাডমিন) শাহাজাদী বেগম বলেন, ‘যোগ্যতা ও পদ অনুসারে নেওয়া হবে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা। সহকারী পরিচালক থেকে ব্রাঞ্চ ম্যানেজার ও শাখা হিসাবরক্ষক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর (মাইক্রোফিন্যান্স) পদে ৫০ নম্বরের লিখিত ও

৫০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হবে। সিনিয়র সুপারভাইজার, ফিল্ড সুপারভাইজারসহ অন্যান্য পদের জন্য শুধু ৫০ নম্বরের মৌখিক পরীক্ষা নেওয়া হয়। ৫০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় সাধারণত ঋণ কার্যক্রম, মাইক্রোফিন্যান্স, এমএফআই টার্মস, টেকনোলজির ক্ষেত্রে ক্ষুদ্রঋণ, ক্ষুদ্রঋণ ও উন্নয়ন, উন্নয়ন কার্যক্রম, এনজিও নীতিমালা, বৈশিষ্ট্য, গুণাবলি, গুরুত্ব, ঋণ আদায়, বিতরণ, পরিচালন, ব্যবস্থাপনা ইত্যাদি বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়। মৌখিক পরীক্ষায় (সব পদ) যোগ্যতা যাচাইয়ে ঋণ কার্যক্রম, সাধারণ জ্ঞান, হিসাবসংক্রান্ত প্রাথমিক বিষয়সহ শিক্ষাগত যোগ্যতার বিষয়ে প্রশ্ন করা হয়।’ সিনিয়র সুপারভাইজার ও সুপারভাইজার—এ ধরনের পদের জন্য চূড়ান্ত বাছাইয়ের পর দেওয়া হবে পাঁচ দিনের প্রশিক্ষণ।

 

বেতন-ভাতা ও অন্যান্য সুবিধা

শিক্ষানবিশকাল শেষে সংস্থার স্থায়ী বেতনকাঠামো অনুসারে বেতন দেওয়া হবে। মাসিক বেতন ছাড়াও উত্সব ভাতা, সিটি করপোরেশনের ক্ষেত্রে বিধি অনুসারে সিটি ভাতা, জীবন বীমা ভাতা দেওয়া হবে। এ ছাড়া ঋণ কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত কর্মীদের লোড অ্যালাউন্স, ক্রেডিট অ্যালাউন্স, ব্যাংকার অ্যালাউন্স, হাইপারফরম্যান্স বোনাসসহ বেশ কিছু সুবিধা দেওয়া হবে।

 

পরীক্ষার প্রস্তুতি  

টিএমএসএসের পুরান বগুড়া শাখার ব্রাঞ্চ ম্যানেজার নাইয়ার সুলতানা বলেন, ‘লিখিত পরীক্ষায় সব পদেই এনজিওর বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। মাঠপর্যায়ের ঋণ নিয়ে কাজ করতে হবে—এমন পদগুলোতে ঋণ পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনার বিষয়েই বেশি প্রশ্ন আসে। লিখিত পরীক্ষার পাশাপাশি ভাইভা বোর্ডেও ঋণ কার্যক্রমের নানা দিক নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। এন্ট্রি লেভেলের পদগুলোতে নতুনদের বেশি অগ্রাধিকার দিয়ে থাকে। লিখিত ও মৌখিক এই দুই পরীক্ষায়ই ঋণ বিতরণ, সঞ্চয় আদায়, সমিতি গঠন ইত্যাদি বিষয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রশ্ন করা হয়। জানতে চাওয়া হয় প্রতিষ্ঠান সম্পর্কে, শিক্ষাগত যোগ্যতা, পড়ার বিষয়, কেন আসতে চায়—এসব বিষয়ে। হিসাব বিষয়ে কেমন জ্ঞান আছে সে জন্য যাচাই করা হয় ইংরেজি ও সাধারণ গণিত। সমসাময়িক ঘটনা সম্পর্কে কতটা আপডেট সে জন্য সাধারণ জ্ঞানের নানা বিষয়ে জানতে চাওয়া হয়।’

 

* নিয়োগ পাবে ২০০৪ জন * আবেদন জমা দেওয়ার শেষ সময় ২৭ মার্চ

* পরীক্ষার তারিখ : যোগ্য প্রার্থীদের এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে নির্বাচনী পরীক্ষার তারিখ, সময় ও স্থান

* ডিভিশনাল, জোন অফিসের ঠিকানাসহ নিয়োগসংক্রান্ত দরকারি তথ্য পাওয়া যাবে www.tmss-bd.org ওয়েবসাইটে

মন্তব্য