kalerkantho

চলতি বিশ্ব

১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ | পড়া যাবে ২ মিনিটে



সিরিয়া থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু

সিরিয়া থেকে সেনা প্রত্যাহার শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র। গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিরিয়ায় দায়িত্বরত দুই হাজার মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন। সিরিয়ায় ইসলামিক স্টেটকে (আইএস) নির্মূল করতে ২০১৪ সালে যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন জোট সেখানে যুদ্ধ শুরু করে। যদিও তুরস্কের এরদোয়ান সরকার আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইরত কুর্দি বাহিনীকেই জঙ্গি সংগঠন বিবেচনা করে। কুর্দিদের সঙ্গে তুরস্কের সেনাদের দীর্ঘ লড়াইয়ের ইতিহাসও আছে। অন্যদিকে রাশিয়া ও ইরান সমর্থিত সিরিয়ার সরকারি বাহিনীও মার্কিন সেনাদের অনুপস্থিতির সুযোগ কাজে লাগিয়ে বিদ্রোহী গোষ্ঠী নিয়ন্ত্রিত এলাকাগুলোর দখল নিতে চাইবে। ফলে সিরিয়ায় নতুন করে ভয়াবহ যুদ্ধ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

 

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে দীর্ঘ অচলাবস্থা

সীমান্ত দেয়ালের বরাদ্দ পাওয়া নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের একগুঁয়েমির জেরে যুক্তরাষ্ট্রের সরকার ব্যবস্থায় সৃষ্টি হওয়া অচলাবস্থা অতীতের সব রেকর্ড ছাপিয়ে গেছে। গত ২১ ডিসেম্বর মধ্যরাতের পর শুরু হয় এই অচলাবস্থা। এর আগে ১৯৯৫-৯৬ সালে তত্কালীন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের আমলে সর্বোচ্চ ২১ দিন অচল ছিল যুক্তরাষ্ট্র সরকার।

মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের জন্য ৫৭০ কোটি মার্কিন ডলার বরাদ্দ ছাড়া কোনো অর্থবাজেটে স্বাক্ষর করবেন না বলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন ট্রাম্প। অন্যদিকে বিরোধী ডেমোক্রেটিক নিয়ন্ত্রিত যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসের নিম্নকক্ষ হাউস অব রিপ্রেজেনটেটিভের নেতারা ‘জনগণের করের টাকায়’ ট্রাম্পকে তাঁর নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করতে না দেওয়ার ‘প্রতিজ্ঞা’ করেছেন।

 

মন্তব্য