kalerkantho


১০ মিনিটের পাঠশালা

দুই মিনিটে নুডলস তৈরি কিংবা ৩০ মিনিটে হোম ডেলিভারি হয়তো সম্ভব। কিন্তু ১০ মিনিটের পাঠশালা! এও সম্ভব! অনলাইন ইশকুলটির সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছেন সানজিদ সাদ

২০ এপ্রিল, ২০১৬ ০০:০০



১০ মিনিটের পাঠশালা

আয়মান সাদিক

ক্লিক করলেই পছন্দের বিষয়ের ওপর নির্ধারিত কিছু নৈর্ব্যক্তিক প্রশ্ন চলে আসবে। ১০ মিনিটের মধ্যে এসব প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে। সময় শেষ হলে অথবা সব প্রশ্নের উত্তর দেওয়া হয়ে গেলে দেওয়া হবে ফলাফল। সঙ্গে সঙ্গেই পাওয়া যাবে র্যাংকিং! অর্থাৎ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে আপনার অবস্থান কত, তাও বলে দেবে ওয়েবসাইটটি। টেন মিনিট স্কুল (১০সরহঁঃবংপযড়ড়ষ.পড়স) নামের এই অনলাইন স্কুলের উদ্যোক্তা সদ্য স্নাতক পেরোনো আয়মান সাদিক।

এক সাইটে অনেক কিছু

বিভিন্ন পরীক্ষার প্রস্তুতি, প্রস্তুতি যাচাই কিংবা তথ্য অনুসন্ধান, সব হবে এক ওয়েবসাইটে। অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি), মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা থেকে শুরু করে আইবিএ, মেডিক্যাল, প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য সহস্রাধিক ‘কুইজ’ পরীক্ষার প্রশ্ন পাওয়া যাবে এখানে। বিসিএস, ব্যাংক ও অন্যান্য নিয়োগ পরীক্ষার প্রস্তুতির পাশাপাশি আইইএলটিএস, টোফেল, স্যাট, জিআরই, জিম্যাটের জন্যও আছে ভিন্ন ভিন্ন কুইজ। ওয়েবসাইটটির বর্ণনায় লেখা আছে, এটা এমন এক প্ল্যাটফর্ম, যেখানে শিক্ষার্থীরা নিজেদের পছন্দের বিষয় শিখতে পারবে, বিভিন্ন তথ্য জানতে পারবে এমনকি কোনো বিষয়ে নিজের দক্ষতা যাচাইয়ের জন্য পরীক্ষাও দিতে পারবে। বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো ধরনের তথ্য, কত পয়েন্ট থাকলে পরীক্ষা দেওয়া যাবে কিংবা কোন বিভাগের আসনসংখ্যা কত—এ সব কিছু ‘ইনফোগ্রাফিকস’ আকারে দেওয়া হয়েছে এই ওয়েবসাইটে। বিষয়ভিত্তিক প্রস্তুতির জন্য রয়েছে ‘টিউটরিয়াল’ ও ‘ইনফো গ্রাফিক’-এর ব্যবস্থা।

পেছনের কথা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউটে (আইবিএ) ভর্তি হয়ে আয়মান সাদিক পড়লেন মহা মুসিবতে। স্কুল-কলেজে বিজ্ঞান নিয়ে পড়েছেন। বিশ্ববিদ্যালয়ে হিসাববিজ্ঞান ক্লাসে বসে তাঁর মাথায় ঘুরপাক খেতে লাগল ছাত্রজীবনে বহুল প্রচলিত কথা—‘কিচ্ছু বুঝি না!’ সে সময় হঠাৎ ইউটিউবে হিসাববিজ্ঞান বিষয়ের ওপর কিছু টিউটরিয়াল খুঁজে পেলেন। তারপর? ‘সতেরোটা ভিডিও দেখে আবিষ্কার করলাম, হিসাববিজ্ঞানের মোটা বইটির ১৭টি অধ্যায় পড়া শেষ। ভাবলাম. সহজে শেখার এই উপায়টি শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে দিলে কেমন হয়? এই ভাবনা থেকেই বছর দুয়েক আগে যাত্রা শুরু টেন মিনিট স্কুল নামের এই ওয়েবসাইটটির।’ বললেন আয়মান।

 

নেপথ্যে যাঁরা

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি, ব্র্যাকসহ বেশকিছু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের স্বেচ্ছাশ্রমে তৈরি হয়েছে এই অনলাইন স্কুল। সহযোগিতা করছেন বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাও।

টেনমিনিটস্কুলের কর্মী শামস, জিহান, সামিদ, আকিব, রামিম, সাদমান, রাইদ, মেহেদি, মুনযেরীন, শামীর, রাতুল, রেফান কাজ করে চলেছেন। তাঁরা জানালেন, সবাই মিলে এ সব কিছুই করছেন একটাই লক্ষ্যে—শেখা ও শেখানোর সময়টাকে ‘দশ মিনিটে’ নামিয়ে আনা!

আইবিএ থেকে সদ্য স্নাতক পেরোনো আয়মান বলছিলেন, ‘আমি নিজে অনেক কিছুই শিখেছি খান একাডেমির ভিডিও দেখে। সেখান থেকেই ধারণা পেলাম, আমাদের শিক্ষার বিষয়গুলোও সহজভাবে উপস্থাপন করা যায় কি না। এখন পর্যন্ত মোট ২০০-র বেশি টিউটরিয়াল ও এক হাজার ৪৩টি কুইজ আমাদের ওয়েবসাইটে দেওয়া হয়েছে। প্রতিনিয়ত এই সংখ্যা বাড়ছে।’

 

 

ওয়েবসাইটটির নাম টেনমিনিটস্কুল কেন? ‘আমরা কথায় কথায় বলি, দশ মিনিটে করে দিচ্ছি। এই স্কুলের বক্তব্যও সেটাই। কোনো বিষয়ে কিছু শিখতে চান? নিজের দক্ষতা যাচাই করতে চান? আমাদের ওয়েবসাইটে স্রেফ ১০ মিনিট সময় দিন।’

যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো শিক্ষার্থী, শিক্ষক এই অনলাইন স্কুলের জন্য স্বেচ্ছাশ্রম দিতে পারেন। চাইলে কেউ অনুদানও দিতে পারেন, যাতে দশ মিনিটের পাঠশালার পরিধি আরো বড় করা যায়। আয়মান সাদিক বলেন, ‘আমাদের দেশের শিক্ষার্থীদের যেন কোচিংয়ের ওপর নির্ভর করতে না হয়, ঘরে বসেই যেন তারা বিনা মূল্যে শিখতে পারে, পরীক্ষার প্রস্তুতি যাচাই করতে পারে, এটাই আমাদের চাওয়া।’

টেনমিনিটস্কুলের ফেসবুক পেজ : facebook.com/10minuteschool

ইউটিউব ঠিকানা : youtube.com/c/10minuteschool



মন্তব্য