kalerkantho


ঈদের দিনে-রাতে

দিনের সাজে শাড়ি বা সালোয়ার-কামিজ, পোশাক যা-ই হোক মেকআপ হবে স্নিগ্ধ আর কোমল। রাতের সাজে সালোয়ার-কামিজ বা ওয়েস্টার্ন লুকেও একটু ভারী মেকআপ অনায়াসে মানিয়ে যায়। শুধু জানতে হবে রঙের পরিমিত ব্যবহার। বলছিলেন নভীন\'স বিউটি স্যালনের রূপ বিশেষজ্ঞ আমিনা হক   

১৪ জুলাই, ২০১৪ ০০:০০



ঈদের দিনে-রাতে

মেকআপ

ঈদের সকালে ভারী ফাউন্ডেশন এড়িয়ে চলুন যতটা সম্ভব। ম্যাট ফাউন্ডেশন দিয়ে বেইস করুন। ত্বক তৈলাক্ত হলে প্রথমে সারা মুখে লুজ পাউডার লাগিয়ে তারপর ফাউন্ডেশন লাগান। মেকআপ দীর্ঘস্থায়ী করতে ওয়াটার প্রুফ ফাউন্ডেশন দিন। ত্বক শুষ্ক হলে আগে বিবি বা সিসি ক্রিম লাগিয়ে তারপর ফাউন্ডেশন লাগান। আর মিশ্র ত্বকের ক্ষেত্রে মুখের টি-জোন বাদ দিয়ে বাকি অংশে ক্রিম এবং টি-জোনে পাউডার দিন। তারপর ফাউন্ডেশন দিন। ত্বক যা-ই হোক, কমপ্যাক্ট পাউডার দিয়ে শেষ করুন বেইস মেকআপ।

রাতের সাজে তৈলাক্ত ত্বকে দিন লিকুইড ফাউন্ডেশন আর শুষ্ক ত্বকে ক্রিম ফাউন্ডেশন। তারপর প্যানকেক। জমকালো আর ভারী সাজেই কেবল প্যানকেক মানানসই। সাধারণত হলুদ আর গোলাপি এই দুই রঙের প্যানকেক ব্যবহৃত হয়। প্রথমে হলুদ প্যানকেক দিয়ে, তারপর ত্বকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে গোলাপি শেডের প্যানকেক দিন। গায়ের রং চাপা হলে হলুদ আর গোলাপি সমপরিমাণে ব্লেন্ড করে লাগান। উজ্জ্বল ত্বকের ক্ষেত্রে হলুদের পরিমাণ গোলাপির চেয়ে কম লাগবে। তবে সব ক্ষেত্রেই মেকআপ ব্লেন্ডিং খুব জরুরি। ত্বকের সঙ্গে বেইস যত ভালোভাবে মিশে যাবে, ততই ন্যাচারাল লুক আসবে। তারপর কমপ্যাক্ট পাউডার দিন। ব্লাশনের জন্য বাদামি থেকে শুরু হয়ে গোলাপির যেকোনো রং নিন। গায়ের রং চাপা হলে বাদামি আর গোলাপি মিশিয়ে ব্যবহার করুন। আর উজ্জ্বল ত্বকের জন্য গোলাপির যেকোনো শেডই মানানসই। রাতের জমকালো পার্টিতে চাইলে শিমার পাউডার ব্যবহার করতে পারেন।

চোখের সাজ

দিনের জন্য চোখে একটি রঙের শেডই যথেষ্ট। বাদামি, তামাটে, হালকা গোলাপি, হালকা বাদামি অথবা সোনালি রঙের শেড লাগাতে পারেন চোখের পাতায়। ঘন করে মাশকারাও লাগান। আইলাইনার না দিয়ে কাজল লাগান। চাইলে রঙিন কাজল ব্যবহার করতে পারেন। চোখের জমকালো সাজে এখনো রাজত্ব করছে পার্পেল থেকে পিংকের নানা শেড। বিশেষ করে অর্কিডের বিভিন্ন শেড এখন ফ্যাশন ট্রেন্ড। এর যেকোনো একটি রঙের সঙ্গে সমন্বয় ঘটাতে পারেন অ্যাশ, গ্রে, বাদামি বা তামাটে যেকোনো রঙের। তবে এ ক্ষেত্রে শ্যাডোর সঠিক ব্লেন্ডিং খুবই জরুরি। গাঢ় শেড চোখের বাইরের কোণের দিকে আর পার্পল ঘেঁষা সিলভার রং ভেতরের কোণের দিকে লাগিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিলেই সুন্দর লাগবে দেখতে। চোখের নিচের পাতার কোণ ঘেঁষেও টেনে দিতে পারেন গাঢ় রঙা শ্যাডো। সঙ্গে ভারী মাশকারা রাতের সাজে আনবে পরিপূর্ণতা।

ঠোঁটের সাজ

ঠোঁটের সাজে এখনো বহাল তবিয়তে আছে উজ্জ্বল, বোল্ড নিয়ন রংগুলো। অনেক দিন শীর্ষে থাকা লাল আর মেরুনের জনপ্রিয়তা একটু কমেছে। সেখানে এখন পিচ, ব্রাইট পিংক, রুবি, ওয়াইন, ম্যাজেন্টা উঠে এসেছে তালিকার শীর্ষে। দিনে বা রাতে নিশ্চিন্তে ঠোঁট রাঙাতে পারেন এ ধরনের ডার্ক রঙে। আর এখনকার আবহাওয়ায় লিপস্টিকও ম্যাট হওয়াই ভালো।



মন্তব্য