kalerkantho

বিশেষ পরামর্শ

যোগ্যতাভিত্তিকে নম্বর বেড়েছে

ড. শাহান আরা বেগম, অধ্যক্ষ, আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজ মতিঝিল, ঢাকা

৭ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০



যোগ্যতাভিত্তিকে নম্বর বেড়েছে

*    গতবারের চেয়ে এবার যোগ্যতাভিত্তিকে নম্বর বেড়েছে। বই পড়ে শিক্ষার্থী কী বুঝেছে, তার মানসিক পরিপক্বতা কেমন—তা যোগ্যতাভিত্তিকে যাচাই করা হয়।

      তাই বিষয়বস্তু ভালোভাবে না বুঝলে ঠিকঠাক উত্তর করতে পারবে না।

*    যোগ্যতাভিত্তিক প্রশ্ন অসাধ্য কিছু নয়।  প্রশ্ন যেভাবেই আসুক, পাঠ্য বইয়ে আলোচিত বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল রেখেই আসবে। তাই বইয়ের বিষয়বস্তু ক্লিয়ার জানা থাকলে একটু মাথা খাটালেই উত্তর দিতে পারবে।  

*    পরীক্ষার আগে সকাল-বিকেল-রাতে রুটিন করে পর্যায়ক্রমে ৬টি বিষয়ের বিভিন্ন অধ্যায় ধারাবাহিকভাবে দেখবে, যাতে পুরো বই রিভিশন দেওয়া যায়। গুরুত্বপূর্ণ লাইনগুলো দাগ দিয়ে রাখলে পরীক্ষার আগের রাতে একনজর দেখে নেওয়া যাবে।  

*    প্রশ্ন হাতে পেয়েই পুরোটা একবার দেখবে।  যেগুলোর উত্তর ভালো জানা আছে, সেগুলো দাগিয়ে রাখবে। এরপর যেগুলো সবচেয়ে ভালোভাবে লিখতে পারবে, সেগুলোর উত্তর আগে দেবে।

 ফুল মার্কসেরই উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবে।  তবে কোনো প্রশ্নের উত্তর যদি পুরোপুরি না পারো, তাহলে যতটুকু পারো লিখবে।  

*    কত নম্বরের কোন প্রশ্নের উত্তরে কয় মিনিট সময় দেবে—আগেই ঠিক করে রাখবে।  তা না হলে সময়মতো সব প্রশ্নের উত্তর দিতে পারবে না।  নমুনা প্রশ্ন দেখে বাসায় মডেল টেস্ট দিলে প্রতিটি প্রশ্নের জন্য সময় নির্ধারণ করা সহজ হবে। এভাবে চর্চা করলে নিজের ভুল-ত্রুটিগুলোও নজরে আসবে।   

*    প্রশ্নপত্র দেওয়ার ১৫ মিনিট আগে উত্তরপত্র দেওয়া হবে।  প্রথম পৃষ্ঠায় থাকা নির্দেশনা অনুসরণ করবে।

*    খাতার ওপরে ও বাঁয়ে এক ইঞ্চির মতো জায়গা রেখে মার্জিন করবে। মার্জিনের জন্য পেনসিল ব্যবহার করতে পারো।  

*    উত্তর লেখা শুরুর আগে ওই প্রশ্নের নম্বর খাতার মাঝখানে স্পষ্ট করে লিখবে। এর নিচে আন্ডারলাইন করবে।  একই প্রশ্নের অধীনে আরো প্রশ্ন থাকলে ধারাবাহিকভাবে ক্রমিক নম্বর বসিয়ে উত্তর লিখবে।

*    উত্তর লেখার সময় কালো কালি ব্যবহার করবে।

*    লেখার সময় ওপরে ও নিচের লাইনগুলোর মাঝখানে পর্যাপ্ত জায়গা ফাঁকা রাখবে।

*    অযথা বড় বড় অক্ষরে লিখে পৃষ্ঠা বাড়াবে না কিংবা একই উত্তরে একই কথা বারবার লিখবে না।

*    সঠিক বানানের পাশাপাশি উত্তর যেন তথ্যভিত্তিক হয়।

*    তুলনামূলক সহজ প্রশ্নের উত্তর আগে লিখবে।

*    হাতের লেখা সুন্দর, পরিচ্ছন্ন ও স্পষ্ট করার চেষ্টা করবে। ওভার রাইটিং বা লেখা ঘষামাজা করবে না।

*    খাতায় কাটাকাটি করবে না।  সুন্দর ও দ্রুত লেখার চর্চা করবে।


মন্তব্য