English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

ক্রোয়েশিয়ার জালে স্পেনের ৬ গোল

  • ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

গত কয়েক বছরে স্পেনের ফুটবল কর্তারা যেসব সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তার ভেতর সবচেয়ে ভালো সিদ্ধান্তটা খুব সম্ভবত লুই এনরিকেকে কোচ করা। ফেসবুকে খেলা সম্প্রচার, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে লিগের ম্যাচ আয়োজন, স্পেনের বাইরে স্প্যানিশ সুপার কাপ আয়োজন, ভর দুপুরে এল ক্লাসিকো; বেশির ভাগ সিদ্ধান্তই হয়েছে সমালোচিত। বিশ্বকাপে প্রথম ম্যাচ মাঠে গড়াবার আগমুহূর্তে কোচ ইউলেন লোগেতুগিকে ছাঁটাই, ফার্নান্দো হিয়েরোকে অন্তর্বর্তীকালীন কোচ নিয়োগ এবং সবশেষে লুই এনরিকেকে লা ফিউরিয়া রোজাদের কোচ নিয়োগ করাটাই খুব সম্ভবত স্পেনের ফুটবল কর্তাদের গত কিছুদিনে নেওয়া একমাত্র সঠিক সিদ্ধান্ত, যার ফলটা পাওয়া যাচ্ছে দ্রুতই। রাশিয়া বিশ্বকাপের রানার্স-আপ ক্রোয়েশিয়াকে স্পেন হারিয়ে দিয়েছে ৬-০ গোলে। আয়োজনটা ছিল উয়েফা নেশনস কাপের লিগ এর ম্যাচ। বিশ্বকাপের ফাইনালের পর ক্রোয়েশিয়ার প্রথম প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচ, তাতেই ৬-০ গোলে হার।

রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সেলোনোয় খেলার সুবাদে প্রতিপক্ষের বেশির ভাগ ফুটবলারকেই ভালো করে চেনেন ইভান রাকিটিচ, লুকা মডরিচ, মাত্তেও কোভাচিচ। রাকিটিচ তো কোচ হিসেবেই পেয়েছেন এনরিকেকে। ১০০তম ম্যাচে সেই চেনা কোচই যে তাঁকে দুঃস্বপ্ন উপহার দেবেন, সেটা কে জানত! ম্যাচের ২৪ মিনিটে প্রথম গোলটা সাউল নিগুয়েসের। ৯ মিনিট পরে আরেক গোল মার্কো আসেনসিওর। মিনিট দুয়েক পর লোভ্রে কালিনিচের আত্মঘাতী গোল। প্রথমার্ধেই ৩-০ গোলে এগিয়ে থাকা স্পেন দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে পেয়ে যায় আরেকটি গোলের দেখা। ৪৯ মিনিটে গোল করে ব্যবধান বাড়ান রদরিগো। ৫৭ মিনিটে সের্হিয়ো রামোস করেন আরো একখানা গোল, ৭০ মিনিটে স্কোরশিটে নাম তোলেন ইসকো।

নতুন চালু করা উয়েফা নেশনস লিগে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বিশ্বকাপের রানার্স-আপদের বড় ব্যবধানে হারিয়ে নিজের কোচিং পদ্ধতির ওপর বাকিদের আস্থা বাড়িয়ে তুলেছেন এনরিকে। ম্যাচ শেষে বললেন, এটা খুব সহজেই বলতে পারি যে এই দলটাই হচ্ছে আমার মনের মতো স্পেন দল যারা অনেক অনেক সুযোগ তৈরি করেছে আর কম গোল হজম করেছে। তবে সত্যি কথাটা হচ্ছে, আমি খুব দ্রুত সব কিছু পরিবর্তন করতে ভালোবাসি। তবে এই সপ্তাহে সব কিছুই একদম নিখুঁত হয়েছে।

বিশ্বকাপের রানার্স-আপদের জালে ৬ গোল দেওয়াটা কি অভ্যাস বানিয়ে ফেলল স্পেন! এই বছর মার্চে, তখনো আর্জেন্টিনাই রানার্স-আপ; স্পেনের কাছে আকাশি-নীলরা হেরেছিল ৬-১ গোলে। এবার ক্রোয়েশিয়া হারল ৬-০তে। এনরিকে অবশ্য এসব তুলনায় একদমই যেতে চান না, বিশ্বকাপের সঙ্গে এই ম্যাচের কোনো তুলনা চলে না। এই ম্যাচে আমরা কার্যকর ছিলাম আর সব কিছু ঠিকঠাকমতো হয়েছে। তারা শুরুতে একটা সুযোগ পেয়েছিল, সেটা কাজে লাগাতে পারেনি; এরপর আমরা দারুণ খেলি আর বেশ কিছু দারুণ গোল দিই। ক্রোয়াট কোচ জ্লাতকো দালিচ অবশ্য স্বাভাবিকভাবেই নিচ্ছেন এই ফল বিপর্যয়কে, আমাদের কান্নাকাটি করে লাভ নেই, আমাদের আরো ভালো করতে হবে। যা হয়েছে তা হয়ে গেছে, ওরা যতগুলো সুযোগ নিয়েছিল সবই জালে গেছে। ভালো হলো ব্যাপারটা এখানেই হয়ে গেছে, পরে কোথাও হয়নি। প্রথম গোলের পর আমরা মনোযোগী ছিলাম না। আমরা দ্রুত সব কিছু করতে গিয়ে পদ্ধতিতে তালগোল পাকিয়ে ফেলেছি।

নেশনস কাপের অন্যান্য ম্যাচে বেলজিয়াম ৩-০ গোলে হারিয়েছে আইসল্যান্ডকে, হাঙ্গেরি ২-১ গোলে হারিয়েছে গ্রিসকে আর ফিনল্যান্ড ১-০ গোলে হারিয়েছে এস্তোনিয়াকে। উয়েফা, এএফপি

খেলা- এর আরো খবর