English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

মুখোমুখি প্রতিদিন

এই জয়টা ভীষণ প্রয়োজন ছিল

  • ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

নেপালের বিপক্ষে রক্ষণ সামলাতেই বেশি ব্যস্ত থাকতে হয়েছে পাকিস্তানকে। ফরোয়ার্ডদের ওপর বাড়তি চ্যালেঞ্জ ছিল এক-দুটি সুযোগ যা পাওয়া যাবে, তা কাজে লাগানোর। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে তেমনি একটি সুযোগ কাজে লাগিয়ে সাফের প্রথম ম্যাচে দলকে জয় এনে দিয়েছেন মোহাম্মদ আলী। কালের কণ্ঠ স্পোর্টসের মুখোমুখি হয়ে এ জয় নিয়েই কথা বলেছেন পাকিস্তানি স্ট্রাইকার

কালের কণ্ঠ স্পোর্টস : হাসান বশির চোট পেয়ে উঠে যাওয়ার পর গোল করার বাড়তি দায়িত্ব পড়েছিল আপনার?

মোহাম্মদ আলী : ফুটবলটা এমনই। একজন যাবে আরেকজন তার দায়িত্ব নেবে। হাসানের বদলি সাদউল্লাহও দারুণ খেলেছে। ওর পাসেই তো আমি গোলটা করলাম।

প্রশ্ন : তিন বছর পর সিনিয়র জাতীয় দলের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ ছিল এটি, এ জয়ের আবেদন নিশ্চয়ই অনেক?

আলী : অনেক। এ জয়টা ভীষণ প্রয়োজন ছিল। পুরো পাকিস্তানই অপেক্ষায় ছিল এমন কিছুর। আমরা তাদের সেই জয় উপহার দিতে পেরে সত্যি খুব খুশি। এ পারফরম্যান্সে বলতে পারেন পাকিস্তান ফুটবল ফেডারেশনকেও একটা বার্তা দিলাম যে আমরা নিয়মিত খেলতে চাই। দু-তিন বছর আন্তর্জাতিক ফুটবলের বাইরে থাকাটা অনেক কষ্টের। এখন আমরা চাই যেন আরো বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ হয় আমাদের।

প্রশ্ন : এই সময়ে আপনি চর্চাটা চালিয়ে গেছেন কিভাবে?

আলী : আমি ভাগ্যবান বলতে পারেন। আমি ডেনমার্কে থাকি, সেখানে ফুটবল খেলেছি। ড্যানিশ দ্বিতীয় বিভাগ লিগের একটি দলে খেলছি। আমার নিজের খেলা নিয়ে তাই খুব একটা সমস্যা হয়নি। যদিও আন্তর্জাতিক ম্যাচের বাইরে থাকা আমাদের সবার জন্যই ছিল হতাশার। এ অবস্থায় জাতীয় দলে খেলার জন্য উদ্দীপনাটা ধরে রাখা কঠিন।

প্রশ্ন : আজ আপনারা ডিফেন্সে বাড়তি নজর রেখে খেলেছেন, ফরোয়ার্ড হিসেবে আপনাদের কাজটা তো তাই সহজ ছিল না?

আলী : এমন না যে ডিফেন্সিভ খেলার স্ট্র্যাটেজি নিয়েই আমরা মাঠে নেমেছিলাম। নেপালের ক্রমাগত প্রেসিংয়ের মুখেই আমাদের ডিফেন্সটা জমাট রাখতে হয়েছে। মিডফিল্ডে ওরা খুব ভালো খেলছিল। আমাদের কী করা উচিত অনেক সময়ই বুঝে উঠতে পারছিলাম না। তবে ডিফেন্স সব রকম বিপদ সামলে নিয়েছে। এ অবস্থায় ওপরে যেকোনো সুযোগে আমাদের নিখুঁত হতে হতো। আমরা চেষ্টা করেছি। কাউন্টার অ্যাটাকে ওদের আমরা বিপদে ফেলতে পেরেছি। এ জয় নিয়ে সব দিক দিয়েই আমরা খুশি।

প্রশ্ন : পরের ম্যাচের প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ নিয়ে কী ভাবনা?

আলী : সেটাও একটা কঠিন ম্যাচ হবে নিশ্চিত। কারণ আমরা স্বাগতিকদের বিপক্ষে খেলব। কোচ এ জন্য আলাদা পরিকল্পনা নেবেন নিশ্চয়ই। আজ আমরা তাঁর কথামতো খেলতে পেরেছি।

খেলা- এর আরো খবর