English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের উদ্দেশে বিভাগীয় কমিশনার

নিজেকে শাসক নয় সেবক মনে করতে হবে

  • নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম   
  • ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

নগরের সার্কিট হাউসে গতকাল শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বক্তব্য দেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান। ছবি : কালের কণ্ঠ

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর গত ১০ বছরে দেশে বহুমুখী উন্নয়ন হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।

তিনি বলেন, সরকারি সেবা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে সরকার জনপ্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ঢেলে সাজিয়েছে। স্বচ্ছতা ও দক্ষতার সাথে কাজ করতে প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীদের বেতন-ভাতা ১২৩ ভাগ বৃদ্ধি করেছে।

গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে বিভাগীয় কমিশনার অফিস আয়োজিত ৩৬তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের ৫ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে চট্টগ্রাম বিভাগে নিযুক্ত শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনারদের হাতে ফুল ও বই তুলে দেন বিভাগীয় কমিশনার।

তিনি বলেন, প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে নিজেকে শাসক না ভেবে সেবক হিসেবে জনগণকে দুর্নীতিমুক্ত সেবা দিতে হবে। তাহলে সিভিল সার্ভিসের ঐতিহ্য অক্ষুণ্ন থাকবে।

অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহার সভাপতিত্বে ও সহকারী কমিশনার (ভূমি-বাকলিয়া) সাবরিনা মুস্তফার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান।

উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় পরিচালক (স্থানীয় সরকার) দীপক চক্রবর্তী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মো. মোমিনুর রশিদ আমিন, বিভাগীয়

উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) শ্রাবন্তী রায়, জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এল এ) মো. মমিনুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. দেলোয়ার হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো. আমিরুল কায়ছার, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এ ডি এম) মোহাম্মদ মাশহুদুল কবির প্রমুখ। প্রশিক্ষণে চট্টগ্রাম বিভাগে নিয়োগপ্রাপ্ত ৩৬তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের ৬৩ জন শিক্ষানবিশ সহকারী কমিশনার অংশ নেন।

দ্বিতীয় রাজধানী প্রতিদিন- এর আরো খবর