English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

রাজবাড়ীর গৃহবধূকে অপহরণ করে ঢাকায় নিয়ে ধর্ষণ

  • রাজবাড়ী প্রতিনিধি   
  • ৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দি উপজেলার এক গৃহবধূকে তুলে ঢাকায় নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আদালতের নির্দেশে গতকাল শুক্রবার সকালে বালিয়াকান্দি থানায় ধর্ষণ ও এতে সহযোগিতার অভিযোগে চারজনের বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়েছে।

মামলায় আসামিরা হলেন বালিয়াকান্দির নারুয়া ইউনিয়নের খালিয়া মধুপুর গ্রামের তায়জাল মণ্ডলের ছেলে সিরাজ মণ্ডল, সেকেন মণ্ডলের ছেলে মোস্তফা মণ্ডল, তায়জাল মোল্লার ছেলে ইউনুছ মোল্লা ও নবাবপুর ইউনিয়নের বড়হিজলী গ্রামের মৃত সামাদ মোল্লার ছেলে মোক্তার হোসেন।

মামলার বাদী ওই গৃহবধূ জানান, তিনি গত ৯ আগস্ট নারুয়া বাজারের বেসরকারি সংস্থা ব্র্যাক অফিস থেকে কিস্তিভিত্তিক ঋণের ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করেন। সেখান থেকে নিজবাড়ি ফেরার উদ্দেশ্যে একটি মসজিদের সামনে পৌঁছান। এ সময় সিরাজ মণ্ডলের নেতৃত্বে আসামিরা তাঁকে জোর করে একটি সাদা রঙের মাইক্রোবাসে তুলে রাজধানী ঢাকায় নিয়ে যান। পরে তাঁকে একটি ঘরে দুই দিন আটকে রেখে সিরাজ মণ্ডল ও তাঁর এক সহযোগী ধর্ষণ করেন। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। ১১ আগস্ট রাত ৯টার দিকে তাঁকে সিরাজ তাঁর আরেক সহযোগী মোক্তার হোসেনের বালিয়াকান্দির নবাবপুর ইউনিয়নের বড়হিজলী গ্রামের বাড়িতে এনে তোলেন। এ বাড়িতে অবস্থানের খবর পেয়ে তাঁর (গৃহবধূ) অভিভাবকরা এসে তাঁকে উদ্ধার করেন। এ ঘটনায় তিনি ১৪ আগস্ট রাজবাড়ী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে আসামিদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও এতে সহায়তা করার একটি মামলা করেন।

এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও বালিয়াকান্দি থানার এসআই হাবিবুর রহমান জানান, আদালতের বিচারক মামলাটি বালিয়াকান্দি থানার ওসিকে রেকর্ড করার নির্দেশ দেন। মামলাটি থানায় রেকর্ড করা হয়েছে।

থানার ওসি হাসিনা বেগম জানান, আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। শিগগিরই তাঁদের গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হবে।

প্রিয় দেশ- এর আরো খবর