English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

সেলফি তুলতে গিয়ে সড়কে চালকের মৃত্যু

আরো পাঁচ স্থানে পাঁচজন নিহত

  • কালের কণ্ঠ ডেস্ক   
  • ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

পঞ্চগড়ে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলতে গিয়ে সড়কে এক চালকের মৃত্যু হয়েছে। গাজীপুরের টঙ্গীতে গাড়িচাপায় পোশাক কর্মকর্তা, ফরিদপুরে ট্রাকচাপায় পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মী, মৌলভীবাজারের বড়লেখায় মিনিবাসচাপায় মোটরসাইকেল আরোহী, নওগাঁর মান্দায় মাইক্রোবাসের চাপায় সাইকেল আরোহী এবং মেহেরপুরের গাংনীতে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এ ব্যাপারে আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

পঞ্চগড় : পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ার বোয়ালমারী এলাকায় গতকাল শনিবার বিকেলে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলতে গিয়ে বিল্লাল হোসেন (২২) নামে এক ট্রাক্টরচালকের মৃত্যু হয়েছে। বিল্লাল তেঁতুলিয়ার ডাকবদলি মাঝিপাড়া এলাকার কাবুল হোসেনের ছেলে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বিল্লাল কালান্দি বাজার থেকে ট্রাক্টর নিয়ে পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহাসড়ক ধরে মাঝিপাড়ার দিকে যাচ্ছিলেন। বোয়ালমারী এলাকায় এইচ আর ফিলিং স্টেশনের সামনে বিল্লাল চলন্ত গাড়িতে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলছিলেন। এ সময় গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে থাকা বালুর স্তূপে ধাক্কা খেয়ে উল্টে যায়। এ সময় ট্রাক্টরের নিচে চাপা পড়ে গুরুতর আহত হন বিল্লাল। পরে স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তেঁতুলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। তেঁতুলিয়া মডেল থানার ওসি জহুরুল হক জানান, হয়তো কোনো কারণে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারালে তার নিচে চাপা পড়ে ওই চালকের মৃত্যু হয়েছে।

টঙ্গী (গাজীপুর) : গাজীপুরের টঙ্গী এরশাদনগর শালিকচূড়া এলাকার নিপ্পন পোশাক কারখানার কোয়ালিটি ম্যানেজার বিল্লাল হোসেন (৪০) গতকাল শনিবার বিকেলে গাড়িচাপায় মারা গেছেন। এ ঘটনায় ওই কারখানার শ্রমিকরা ক্ষুব্ধ হয়ে বিক্ষোভ ও মহাসড়ক অবরোধ করে। এতে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বিল্লাল দিনাজপুরের বিরলের ধর্মদোহৈন গ্রামের রকিব উদ্দিনের ছেলে। তিনি টঙ্গীর সাতাইশ এলাকায় একটি ভাড়াবাসায় বাস করে নিপ্পন কারখানায় চাকরি করতেন।

ফরিদপুর : ফরিদপুর শহরের ঝিলটুলী এলাকায় গতকাল শনিবার সকালে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের (মাতৃমঙ্গল হাসপাতাল) সামনের ফরিদ শাহ রোডে পৌরসভার ময়লাবাহী ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে ফয়সাল খান (২২) নামে এক পরিচ্ছন্নতাকর্মী নিহত হয়েছেন। ফয়সাল খান শহরের রেলস্টেশন-সংলগ্ন মুসলিম সুইপার কলোনির বাসিন্দা আলমগীর খানের ছেলে। ঘটনার দুই প্রত্যক্ষদর্শী জানান, সকালে ওই পরিচ্ছন্নতাকর্মী মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের সামনের সড়কের নর্দমা থেকে ময়লা সংগ্রহ করছিলেন। পাশের পৌরসভার ময়লাবাহী ট্রাকটি দাঁড়ানো ছিল। ফয়সাল ময়লা এনে ট্রাকে ঢেলে দেওয়ার পর ট্রাকে ওঠার চেষ্টা করেন। কিন্তু এর আগেই ট্রাকটি চলা শুরু করলে ওই ট্রাকের পেছনের দিকের চাকায় পিষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হন ফয়সাল। এলাকাবাসী ফয়সালকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বড়লেখা (মৌলভীবাজার) : বড়লেখায় মিনিবাসচাপায় মাওলানা মুজিবুর রহমান (৬০) নামে এক ইমামের মৃত্যু হয়েছে। আহত মুজিবুরকে বড়লেখা থেকে অ্যাম্বুল্যান্সে করে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল হাসপাতালে নেওয়ার পথে শুক্রবার সন্ধ্যায় মারা যান। ইমাম মুজিবুর রহমান বড়লেখার নিজবাহাদুরপুর ইউনিয়নের আদমপুর গ্রামের মৃত সফিকুল ইসলামের ছেলে। গত শুক্রবার বিকেলে কুলাউড়া-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের হাতলিঘাট নামক স্থানে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে।

মান্দা (নওগাঁ) : নওগাঁ-রাজশাহী মহাসড়কের মান্দার মোহাম্মদপুর মোড়ের কাছে গতকাল শনিবার সকালে যাত্রীবাহী একটি মাইক্রোবাসের চাপায় মমতাজ হোসেন ওরফে মন্টু (৪৮) নামে এক সাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। মন্টু উপজেলার বড়মুল্লুক গ্রামের মৃত মহির উদ্দিনের ছেলে। ঘটনায় মাইক্রোবাসসহ চালককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

মেহেরপুর : গাংনীর ইকুড়ি গ্রামে গতকাল শনিবার সকালে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় আজিজুল হক (৫০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। আজিজুল হক বাথানপাড়ার বাসিন্দা। স্থানীয়রা জানায়, ঘটনার সময় নিজ জমিতে কাজ শেষ করে আজিজুল হক সড়কে উঠছিলেন। এ সময় একটি মোটরসাইকেল তাকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। মোটরসাইকেলের ধাক্কায় আজিজুল হক সড়কে পড়ে আহত হন। তাঁকে উদ্ধার করে গাংনী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

খবর- এর আরো খবর