English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

তিন জেলা থেকে ‘জেএমবির ছয় সদস্য’ গ্রেপ্তার

  • কালের কণ্ঠ ডেস্ক   
  • ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

রাজশাহী, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও বরিশাল থেকে জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) ছয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করার কথা জানিয়েছে র্যাব। এর মধ্যে পাঁচজনকে ধরা হয় রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের চরাঞ্চল থেকে। আর বরিশালে একজন গ্রেপ্তার হয় নগরের দড়গাহবাড়ীর রোড এলাকা থেকে।

রাজশাহী ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার পাঁচজন হলো রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার আলীপুর বারইপাড়া গ্রামের আমিনুল ইসলাম (৩২), চর বোয়ালমারী আদর্শ গ্রামের মোশাররফ হোসেন (২২), চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম কোদালকাটি মধ্যচরের রফিকুল ইসলাম, ইসমাইল হোসেন (৩০) ও রফিকুল ইসলাম (৪০)।

র্যাব-৫-এর সংবাদ বিজ্ঞপ্তির বরাত দিয়ে কালের কণ্ঠর নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী জানায়, গত ১৩ ও ১৪ মে রাজশাহী এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে জেএমবির চার সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, আমিনুল নামে এক ব্যক্তি গোদাগাড়ী এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ এলাকায় জেএমবির সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করছে। তার নির্দেশেই পরিচালিত হচ্ছে সাংগঠনিক কার্যক্রম। এ তথ্য পাওয়ার পর আমিনুলের খোঁজে নামে র্যাবের গোয়েন্দারা। পরে জানা যায়, চর বোয়ালমারী এলাকায় অবস্থান করছে জেএমবি নেতা আমিনুল। সেখানে অভিযান চালিয়ে আমিনুল ও মোশাররফকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চাঁপাইনবাবগঞ্জের চর কোদালকাটিতে অভিযান চালিয়ে গ্রেপ্তার করা হয় বাকি তিনজনকে। তারা সবাই জেএমবিতে সক্রিয় থাকার অভিযোগ স্বীকার করেছে। র্যাব জানায়, তাদের কাছে ম্যাগাজিন, চার রাউন্ড গুলি, একটি বিদেশি পিস্তল, ২০০ গ্রাম গান পাউডার, সাতটি হ্যান্ডনোটসহ জিহাদি বইপত্র পাওয়া গেছে।

র্যাব-৮-এর বরাত দিয়ে কালের কণ্ঠর বরিশাল অফিস জানায়, নগরের দড়গাহবাড়ীর রোড এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার রাতে জেএমবি সদস্য আব্দুল্লাহ আল মিরাজ ওরফে খালেদ সাইফুল্লাহকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে বরগুনা সদরের মনশাতলী এলাকার বাসিন্দা। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে জেএমবির সক্রিয় সদস্য বলে স্বীকার করেছে। র্যাবের এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মিরাজের কাছে একটি পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন, চার রাউন্ড গুলি, ১৫টি ইলেকট্রিক সার্কিট, একটি তাতাল, ১৬টি জিহাদি বই, দুটি জিহাদি পাসপোর্টসহ বিভিন্ন জিনিস পাওয়া গেছে।

খবর- এর আরো খবর