English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

আরো এক বছর থাকছেন জ্যাক মা

  • বাণিজ্য ডেস্ক   
  • ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

আগামী এক বছর পর আলিবাবা ছাড়বেন কম্পানির সহপ্রতিষ্ঠাত জ্যাক মা। তিনি বর্তমানে চীনের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে আছেন। সম্প্রতি নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকা তাঁকে উদ্ধৃত করে জানায়, শিক্ষা ও মানবসেবায় কাজ করতে জ্যাক মা সহসাই আলিবাবা ছাড়ছেন।

পত্রিকার এ প্রতিবেদনের পর গত সোমবার আলিবাবা থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, ২০১৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর জ্যাক মা নির্বাহী চেয়ারম্যান পদ ছেড়ে দেবেন। তাঁর স্থলাভিষিক্ত হবেন আলিবাবার বর্তমান সিইও ডানিয়েল ঝংগ। এ ছাড়া ২০২০ সালে কম্পানির বার্ষিক সাধারণ সভা পর্যন্ত তিনি বোর্ড সদস্য হিসেবে থাকবেন।

১৯৯৯ সালে আলিবাবা প্রতিষ্ঠা করেন জ্যাক মা। ২০১৩ সালে কম্পানির প্রধান নির্বাহীর পদ থেকে সরে দাঁড়ান। তিনি বর্তমানে কম্পানির আন্তর্জাতিক রাজনৈতিক ও ব্যাবসায়িক বিষয়গুলো দেখছেন। ২০১৫ সালে কম্পানির সিইও হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন ডানিয়েল ঝংগ, যাঁকে আলিবাবার সিঙ্গেল ডে উদ্যাপনের স্থপতি বলা হয়। তাঁর নেতৃত্বেই আলিবাবা ১১ নভেম্বর সিঙ্গেল ডে উদ্যাপন শুরু করে, যা বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং ইভেন্টে পরিণত হয়েছে।

কম্পানির ওই চিঠিতে জ্যাক মা বলেন, ডানিয়েল ঝংগের তত্ত্বাবধানে আলিবাবা টেকসই প্রবৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। টানা ১৩ প্রান্তিক ধারাবাহিক প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। আলিবাবার মশাল ডানিয়েল এবং তাঁর দলের হাতে ছেড়ে দেওয়ার যে প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে তা সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত। ডানিয়েল ঝংগ একই সঙ্গে সিইও হিসেবেও দায়িত্ব পালন করবেন। ৫৪ বছর বয়সী জ্যাক মা বর্তমানে শিক্ষা ও পরিবেশের ওপর পরিচালিত বেশ কিছু দাতব্য প্রতিষ্ঠান দেখাশোনা করছেন। তিনি ২০১৪ সালে জ্যাক মা ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন। এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে তিনি শুধু অর্থ দান নয়, মানবসেবায় সময় দেওয়ার জন্যও তরুণদের উৎসাহিত করেন।

জ্যাক মা মানুষের সেবায় নিজে কাজ করার পাশাপাশি আলিবাবার কর্মীদেরও কমিউনিটি সেবায় উদ্বুদ্ধ করেন। এক প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০১৫ সাল থেকে আলিবাবার কর্মীরা সম্মিলিতভাবে মানুষের সেবায় চার লাখ ৮৩ হাজার ঘণ্টা ব্যয় করেছেন। ফোর্বস ম্যাগাজিনের ২০১৮ সালের বিলিয়নেয়ারের তালিকায় জ্যাক মার সম্পদের পরিমাণ হয় ৩৯ বিলিয়ন ডলার। রয়টার্স, এএফপি।

শিল্প বাণিজ্য- এর আরো খবর