English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

রেসিপি

ঈদের আহার বাহার

উৎসব বলে কথা। পোশাক-আশাকের সঙ্গে খানাপিনাও চাই জম্পেশ। ঈদের সারা দিনের নানা ধরনের খাবারের রেসিপি দিয়েছেন পারিজাত একাডেমির রন্ধনবিদ জিন্নাত রায়হান

  • ১১ জুন, ২০১৮ ০০:০০

সকাল

সেমাইয়ের বরফি

উপকরণ

লাচ্ছা সেমাই ২০০ গ্রাম, কনডেন্সড মিল্ক ১ টিন, চিনাবাদাম ভাজা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, কাঠবাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ, কিশমিশ ১ টেবিল চামচ, ঘি আধা কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. কড়াইয়ে ঘি দিয়ে সেমাই ভেজে নিন। সব বাদাম, কিশমিশ দিয়ে ভাজুন।

২. কনডেন্সড মিল্ক দিয়ে ভালোভাবে নেড়ে মিশিয়ে দিন।

৩. আঠালো হলে ঘি মাখা ট্রেতে বিছিয়ে একটু গরম থাকতে বরফি আকারে কেটে নিন।

শাহি জর্দা

উপকরণ

বাসমতী চাল এক কাপ, চিনি আধা কাপ, কমলা রঙের খাবার রং এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ (২ টেবিল চামচ পানির সঙ্গে মেশান), ঘি ২ টেবিল চামচ, কিশমিশ ১২টি, এলাচ ২টি, দারচিনি ১টি, লবঙ্গ ২টি, তেজপাতা ২টি, কাঠবাদাম কুচি ২ টেবিল চামচ, পেস্তাবাদাম কুচি ১ টেবিল চামচ, ছোট আকারের মিষ্টি ইচ্ছামতো (বড় মিষ্টি হলে কেটে টুকরা করে নিতে পারেন), মোরব্বা কুচি ইচ্ছামতো।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. বাসমতী চাল ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। একটি প্যানে ৪ কাপ পানি ফুটতে দিন। পানি ফুটে উঠলে চাল দিয়ে ভাতের মতো রান্না করুন।

২. চাল ফুটে উঠলে চুলা থেকে নামানোর আগে খাবার রং দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে কমলা রং তৈরি করে নিন। বাসমতী চালের ভাত পানি ছেঁকে নিয়ে ঠাণ্ডা পানি ঢেলে দিন, যাতে ভাতগুলো ঝরঝরে হয়।

৩. এবার একটি পাত্র চুলায় বসিয়ে ঘি দিয়ে গরম করে এতে এলাচ, দারচিনি, কিশমিশ, লবঙ্গ, তেজপাতা এবং ১ টেবিল চামচ কাঠবাদাম কুচি দিয়ে অল্প কিছুক্ষণ নেড়ে নিন।

৪. ছেঁকে রাখা ভাত দিয়ে নাড়ুন। খানিকক্ষণ নেড়ে চিনি দিয়ে আরো একটু নেড়ে মিশিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে মৃদু আঁচে চুলার ওপর রেখে ১৫ মিনিট রান্না করুন। মাঝে মাঝে নেড়ে দিন এবং লক্ষ রাখুন, যাতে নিচে লেগে না যায়।

৫. ১৫ মিনিট পর ঢাকনা খুলে কিছুক্ষণ চুলার আঁচেই রেখে দিন, এতে আঠালো ভাব চলে যাবে। এরপর চুলা থেকে নামিয়ে কাঠবাদাম কুচি, পেস্তাবাদাম কুচি, মোরব্বা ও ছোট মিষ্টির টুকরা দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

স্পেশাল রাইস

উপকরণ

সুগন্ধি চাল আধা কেজি, চিকেন কিমা ১ কাপ, আদা বাটা আধা চা চামচ, রসুন বাটা এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, চিনি ১ চা চামচ, সয়া সস দেড় টেবিল চামচ, টেস্টিং সল্ট ১ টেবিল চামচ, গাজর ছোট কিউব দেড় কাপ, মটরশুঁটি এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, বরবটি ছোট কিউব দেড় কাপ, ফেটানো ডিম ৪টি, চিংড়ি কিমা আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, কাঁচা মরিচ ৫টি, তেল এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন।

২. এবার চুলায় হাঁড়ি বসিয়ে চালের চার গুণ পানি দিয়ে চালের আন্দাজে লবণ দিন। পানি ফুটে উঠলে তাতে চাল দিন। চাল ৮০ শতাংশ সিদ্ধ হলে নামিয়ে পানি ঝরিয়ে তেল মেখে নিন। এরপর ভাত ঠাণ্ডা করুন।

৩. এবার কড়াইয়ে তেল গরম করে ফেটানো ডিম দিয়ে ঝুরঝুরা করে ভেজে আলাদা পাত্রে তুলে রাখুন।

৪. কড়াইয়ে অবশিষ্ট তেলের সঙ্গে আরো একটু তেল দিয়ে পেঁয়াজ ভাজুন। পেঁয়াজ নরম হলে আদা বাটা, রসুন বাটা, চিংড়ির কিমা একত্রে মেখে তেলে দিয়ে নাড়ুন। একটু পর লবণ দিন।

৫. এরপর সবজি দিন। সবজির রং পরিবর্তন হবে না।

৬. ভাত দিয়ে দিন। সয়া সস, চিনি, কাঁচা মরিচ ফালি, লবণ দিয়ে নাড়ুন। টেস্টিং সল্ট দিন। নামানোর ৫ মিনিট আগে ডিম ঝুরি দিয়ে ভাজা ভাজা করে নামান।

শাহি টুকরা

উপকরণ

পাউরুটি ৬ পিস, দুধ ১ লিটার, কনডেন্সড মিল্ক আধা কাপ, জাফরান একচিমটি, চিনি আধা কাপ, পানি আধা কাপ, এলাচ ৪ টুকরা, দারচিনি ২ টুকরা, গ্রেট করা মাওয়া ১ টেবিল চামচ, কাজুবাদাম, পেস্তা, কাঠবাদাম, কিশমিশসব মিলিয়ে ৪ টেবিল চামচ, ঘি আধা কাপ, তেল আধা কাপ, কেওড়া ও গোলাপ জল মিলিয়ে ২ চা চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. বাদাম, পেস্তা কুচি ১ টেবিল চামচ ঘিয়ে ভেজে তুলে নিন।

২. চিনি, পানি, এলাচ ও দারচিনি জ্বাল দিয়ে সিরা বানিয়ে রাখুন।

৩. পাউরুটির চারধার ফেলে কোনাকুনি করে কেটে ঘি ও তেল একত্রে ফ্রাইপ্যানে দিয়ে তাতে বাদামি করে ভেজে নিন।

৪. এবার পাউরুটির স্লাইসগুলো পরিবেশন পাত্রে সাজিয়ে রাখুন।

৫. একটি সসপ্যানে দুধ জ্বাল দিন। সামান্য একটু দুধ নিয়ে তাতে জাফরান ভিজিয়ে রাখুন। দুধ জ্বালিয়ে অর্ধেক করে তাতে কনডেন্সড মিল্ক দিয়ে নেড়ে জাফরান মেশানো দুধ দিয়ে কিছুক্ষণ জ্বাল দিন। এরপর এর মধ্যে ৩ টেবিল চামচ বাদাম, কিশমিশ দিয়ে আরো কিছুক্ষণ জ্বাল দিয়ে নামিয়ে নিন।

৬. এবার সাজানো পাউরুটির ওপর ঘন দুধ ঢালুন। খেয়াল রাখুন রুটির নিচেও যেন দুধ থাকে।

৭. রেখে দেওয়া বাকি বাদাম ও কিশমিশ ছড়িয়ে ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা করে পরিবেশন করুন।

দুপুর

বিফ মালাইকারি

উপকরণ

মাংস ১ কেজি, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, পোস্তদানা বাটা ১ টেবিল চামচ, নারকেল বাটা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, কাঁচা মরিচ বাটা ১ টেবিল চামচ, গোলমরিচ আস্ত ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, নারকেল দুধ ২ কাপ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, ধনে গুঁড়া আধা টেবিল চামচ, তেল ও ঘি মিলিয়ে আধা কাপ, তেজপাতা ৩টি, গরম পানি পরিমাণমতো, পেঁয়াজ কুচি আধা কাপ, দুধ আধা কাপ, লবণ স্বাদমতো, চিনি ১ চা চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. মাংস ধুয়ে পানি ঝরিয়ে আদা বাটা, রসুন বাটা, পেঁয়াজ বাটা, কাঁচা মরিচ বাটা, হলুদ গুঁড়া, ধনে গুঁড়া দিয়ে মেরিনেড করুন ২ ঘণ্টা।

২. কড়াইয়ে তেল ও ঘি দিয়ে গরম হলে পেঁয়াজ কুচি ও তেজপাতা দিন। বাদামি করে ভেজে মাংস ঢেলে ঢেকে দিন। মাংস কষানো হলে ১ কাপ গরম পানি দিয়ে ঢেকে দিন। আস্ত গোলমরিচ দিন।

৩. মাংসের পানি শুকিয়ে গেলে এবং মাংস মোটামুটি সিদ্ধ হলে নারকেল দুধ দিয়ে ঢেকে দিন এবং মাঝে মাঝে নাড়ুন।

৪. মাংস তেলঝোল মাখা মাখা হলে আধা কাপ দুধের সঙ্গে পোস্তদানা বাটা, নারকেল বাটা ও গরম মসলা গুঁড়া মিশিয়ে ঢেলে দিন। ইচ্ছা হলে ১ চা চামচ চিনিও দিতে পারেন।

৫. এরপর ঢেকে মৃদু আঁচে দমে রাখুন ২০ মিনিট। গরম গরম পরিবেশন করুন।

চিকেন রোস্ট

উপকরণ

দেশি মুরগি ১টি, পেঁয়াজ বেরেস্তা ৪ কাপ, আদা বাটা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, রসুন বাটা ২ টেবিল চামচ, টক দই এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, টমেটো সস এক কাপের আট ভাগের এক ভাগ, লবণ ১ টেবিল চামচ, তেল ২ কাপ, পোস্তদানা বাটা ২ টেবিল চামচ, পেস্তা ও কাঠবাদাম বাটা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, কাঁচা মরিচ ৮টি, তেজপাতা ২টি, এলাচ ৫টি, দারচিনি ৬টি, মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, গুঁড়া দুধ এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, কেওড়া জল আধা টেবিল চামচ, আলুবোখারা ৭টি, কিশমিশ আধা কাপ (ভিজিয়ে ধুয়ে নেওয়া), পানি ৩ কাপ, কমলা রঙের খাবার রং ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. অর্ধেকটা বেরেস্তা, গুঁড়া দুধ, গরম মসলা গুঁড়া একত্রে মিশিয়ে রাখুন।

২. কড়াইয়ে বাকি সব মসলা একত্রে মিশিয়ে কিছুক্ষণ কষিয়ে এবার মাংস দিয়ে ঢেকে রান্না করুন যতক্ষণ না মাংস সিদ্ধ হয়।

৩. মাংস সিদ্ধ হয়ে গেলে বেরেস্তার মিশ্রণটি ঢেলে নেড়েচেড়ে মিশিয়ে ১০ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে নিন।

চিকেন কোর্মা

উপকরণ

মাঝারি আকারের মুরগি ২টি, আদা বাটা ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ, পোস্তদানা বাটা ১ টেবিল চামচ, শাহি জিরা বাটা ১ টেবিল চামচ, কিশমিশ বাটা ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, পেঁয়াজ বেরেস্তা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, টক দই আধা কাপ, কাঁচা মরিচ ১০টি, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, জায়ফল গুঁড়া এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, এলাচ ৫টি, দারচিনি ২ টুকরা, তেজপাতা ৩টি, গুঁড়া দুধ ১ চামচ, চিনি ১ চা চামচ, লবঙ্গ ৪টি, আলুবোখারা ৫টি, পেস্তাবাদাম কুচি ১ টেবিল চামচ, লবণ স্বাদমতো, কেওড়া ও গোলাপ জল মিলিয়ে ১ টেবিল চামচ, ঘি বা তেল এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. মাংস ৪ টুকরা করে কেটে ভালো করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে টক দই, সব বাটা, গুঁড়া মসলা ও গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে মেখে দেশি মুরগি হলে ৩ ঘণ্টা এবং ফার্মের হলে ১ ঘণ্টা মেরিনেড করে রেখে দিন।

২. ফ্রাইপ্যানে তেল ও ঘি একত্রে গরম করে পেঁয়াজ কুচি ভাজুন।

৩. পেঁয়াজ ভাজা নরম হলে মেরিনেড করা মাংস, গোটা গরম মসলা ও লবণ দিয়ে কষিয়ে নিন।

৪. মাংস সিদ্ধ হলে আলুবোখারা, কিশমিশ, চিনি, কাঁচা মরিচ, বেরেস্তা, জায়ফল, জয়ত্রি গুঁড়া দিয়ে দমে রাখুন ১৫ থেকে ২০ মিনিট।

৫. এরপর কেওড়া ও গোলাপ জল দিয়ে দিন।

৬. পরিবেশন পাত্রে ঢেলে বাকি বেরেস্তা ও বাদাম কুচি ছড়িয়ে পরিবেশন করুন চিকেন কোর্মা।

বি. দ্র. : চাইলে একটু তেঁতুল গোলাও দিতে পারেন। তবে তেঁতুল গোলা দিলে চিনি বাড়িয়ে দিতে হবে।

নারকেল দুধে হাঁস ভুনা

উপকরণ

হাঁসের মাংস ১ কেজি, আদা বাটা ২ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, জিরা বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, ধনে গুঁড়া ১ চা চামচ, গরম পানি ৩ কাপ, তেল এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, কাঁচা মরিচ ৫টি, গরম মসলা গুঁড়া ১ চা চামচ, নারকেল দুধ ২ কাপ, লবণ স্বাদমতো, এলাচ, দারচিনি, তেজপাতা ২টি করে।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. হাঁসের মাংস কেটে ধুয়ে পরিষ্কার করে পানি নিংড়ে নিন।

২. কড়াইয়ে তেল দিয়ে গরম হলে এলাচ, দারচিনি, তেজপাতা, রসুন ও পেঁয়াজ কুচি দিন।

৩. পেঁয়াজ ও রসুন কুচি নরম হলে গরম মসলার গুঁড়া ছাড়া সব বাটা ও গুঁড়া মসলা দিয়ে আধা কাপ পানি দিয়ে কষিয়ে এরপর মাংস দিয়ে দিন।

৪. মাংস কষিয়ে অর্ধেক নারকেল দুধ ও গরম পানি দিয়ে ঢেকে মৃদু আঁচে মাংস রান্না করুন।

৫. মাখা মাখা ও সিদ্ধ হলে বাকি নারকেল দুধ দিয়ে দিন। কাঁচা মরিচ, গরম মসলার গুঁড়া দিয়ে ঢেকে আঁচ কমিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট দমে রেখে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

বিকাল

চিকেন কোফতা কারি

উপকরণ

কোফতার জন্য : চিকেন কিমা ৫০০ গ্রাম, বেসন আধা কাপ, পেঁয়াজ মিহি কুচি করা ১ কাপ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া আধা চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, লেবুর রস ১ চা চামচ, তেল ভাজার জন্য প্রয়োজনমতো, ফেটানো ডিম ১টি।

কোফতা তৈরি : পাউরুটি পানিতে চুবিয়ে নিংড়ে নিন।

এবার পেঁয়াজ চিপে রস বের করে রাখুন। তেল ছাড়া সব উপকরণ ভালো করে মেখে ২০ মিনিট ঢেকে রেখে দিন। মার্বেলের চেয়ে একটু বড় আকারে কোফতা বানিয়ে তেলে ভেজে নিন।

গ্রেভির জন্য : পেঁয়াজ বেরেস্তা আধা কাপ, পানি ৩ কাপ, পেঁয়াজ বাটা আধা কাপ, আদা বাটা ১ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, জিরা গুঁড়া ১ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া আধা চা চামচ, মরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, ধনে গুঁড়া দেড় চা চামচ, হলুদ গুঁড়া আধা চা চামচ, কাঁচা মরিচ ৪টি, টমেটো পেস্ট ২ টেবিল চামচ, তেল বা ঘি এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, টক দই এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, চিনি ১ চা চামচ, লবণ স্বাদমতো।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. কড়াইয়ে তেল গরম করে বেরেস্তা দিয়ে ২০ সেকেন্ড ভেজে পেঁয়াজ বাটা, আদা ও রসুন বাটা, সব গুঁড়া মসলা, লবণ, টমেটো পেস্ট ও ২ টেবিল চামচ পানি দিয়ে কষিয়ে দিন।

২. মসলা ভালোভাবে কষানো হলে আধা কাপ পানি দিয়ে বলক এলে কোফতাগুলো দিয়ে ঢেকে দিন। কষিয়ে মাখা মাখা করে নিন।

৩. এবার ৩ কাপ পানি দিয়ে নেড়ে মাঝারি আঁচে ঢেকে ৩০ মিনিট রান্না করুন।

৪. কাঁচা মরিচ দিয়ে ঢেকে আরো ১০ মিনিট রান্না করুন।

৫. গ্রেভি মাখা মাখা হলে নামিয়ে পরিবেশন করুন ভাত, পোলাও, রুটি বা নানরুটির সঙ্গে।

সিকামপুরি কাবাব

উপকরণ

গরুর মাংসের কিমা ৫০০ গ্রাম, ঘিয়ে ভাজা বেসন ৩ টেবিল চামচ, আদা বাটা ২ চা চামচ, রসুন বাটা ১ চা চামচ, পেঁয়াজ বাটা ২ টেবিল চামচ, জিরা বাটা ২ চা চামচ, মরিচ বাটা ১ চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, পানি পরিমাণমতো, তেল ২ টেবিল চামচ, ডিম ৩টি, কাবাব মসলা ২ চা চামচ।

কাবাবের মাংস তৈরি

বেসন, ডিম ও কাবাব মসলা ছাড়া সব উপকরণ সিদ্ধ করে শুকিয়ে নিন। ঠাণ্ডা করে বেটে নিন।

পুর তৈরির উপকরণ

পানি ঝরানো টক দই ১ কাপ, ধনেপাতা ও পুদিনাপাতা কুচি ৪ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ মিহি কুচি ৩ টেবিল চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, কাঁচা মরিচ কুচি ১ টেবিল চামচ, বিস্কুটের গুঁড়া ১ কাপ, তেল পরিমাণমতো।

পুর তৈরি

পুরের সব উপকরণ মেখে পুর বানিয়ে নিন।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. বাটা মিশ্রণের সঙ্গে ১টি ডিম, ঘিয়ে ভাজা বেসন ও কাবাব মসলা ভালোভাবে মাখুন।

২. পরিমাণমতো কিমা বাটা নিয়ে ভেতরে পুর ভরে ফেটানো ডিমে ডুবিয়ে নিন। এবার বিস্কুটের গুঁড়ায় গড়িয়ে ২০ মিনিট ফ্রিজের নরমাল তাপমাত্রায় রাখুন।

৩. এরপর ফ্রাইপ্যানের ডুবো তেলে সোনালি করে ভেজে পরিবেশন করুন।

ক্রিমি হোয়াইট সস পাস্তা

উপকরণ

হোয়াইট সস তৈরি : বাটার ২ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, ময়দা ১ টেবিল চামচ, দুধ ১ কাপ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ। বাটার গরম করে রসুন কুচি দিয়ে ভাজুন। এরপর ময়দা দিয়ে ভেজে দুধ দিন। অনবরত নাড়তে থাকুন। এরপর গোলমরিচ গুঁড়া দিয়ে নেড়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

পাস্তা রান্না : পাস্তা ১৫০ গ্রাম, বাটার ২ টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ টেবিল চামচ, পেঁয়াজ কুচি ৩ টেবিল চামচ, সবুজ ক্যাপসিকাম আধা কাপ, লাল বা হলুদ সবুজ ক্যাপসিকাম আধা কাপ, চিলি ফ্লেক্স এক চা চামচের চার ভাগের এক ভাগ, সিদ্ধ করে খোসা ফেলে রাখা টমেটো কুচি বড় ১টি, টমেটো কেচাপ ৩ টেবিল চামচ, অরিগ্যানো আধা চা চামচ, লবণ সামান্য, হোয়াইট সস বানানো পুরোটা, মোজারেলা চিজ আধা কাপ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. কড়াইয়ে বাটার গরম হলে রসুন কুচি দিন। রসুন কুচি ভেজে এরপর পেঁয়াজ কুচি দিন। একটু ভেজে এরপর ক্যাপসিকাম, টমেটো কুচি দিন। এরপর লবণ দিন।

২. টমেটো নরম হয়ে গলে যাওয়ার পর টমেটো কেচাপ দিন। চিলি ফ্লেক্স দিন।

৩. এবার আগে থেকে করে রাখা হোয়াইট সস দিয়ে নেড়ে পাস্তা দিয়ে দিন। একটু নেড়ে মিশিয়ে মোজারেলা দিয়ে ১ মিনিট ভেজে নামিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

মিক্সড ভেজিটেবল উইথ প্রন নুডলস

উপকরণ

সিদ্ধ নুডলস ২ কাপ, খোসা মাথা ছাড়া চিংড়ি ১ কাপ, ক্যাপসিকাম আধা কাপ, গাজর আধা কাপ, বেবিকর্ন এক কাপের চার ভাগের এক ভাগ, স্প্রিং অনিয়ন আধা কাপ, ভাঁজ খোলা পেঁয়াজ আধা কাপ, আদা কুচি আধা টেবিল চামচ, রসুন কুচি ১ চা চামচ, কাঁচা মরিচ ৫টি, টমেটো সস এক কাপের চার ভাগের তিন ভাগ, টমেটো চিলি সস ১ টেবিল চামচ, সয়া সস ১ টেবিল চামচ, পার্সলে কুচি ১ টেবিল চামচ, লবণ ১ চা চামচ, তেল ৪ টেবিল চামচ।

যেভাবে তৈরি করবেন

১. নুডলস সিদ্ধ করে পানি ঝরিয়ে ১ টেবিল চামচ তেল মেখে রাখুন।

২. গাজর, বেবিকর্ন ফুটন্ত পানিতে ১ মিনিট ভাপিয়ে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

৩. ফ্রাইপ্যানে তেল দিয়ে গরম হলে আদা-রসুন কুচি দিন।

৪. আদা-রসুন ভাজা সুগন্ধ বের হলে পেঁয়াজ দিন। পেঁয়াজ হালকা ভেজে চিংড়ি ও ১ চা চামচ সয়া সস দিয়ে ভাজুন। এবার নুডলস দিয়ে ভাজুন।

৫. গাজর, বেবিকর্ন, ক্যাপসিকাম, স্প্রিং অনিয়ন দিন। কাঁচা মরিচ দিন। ২ মিনিট ভেজে সব সস একত্রে মিশিয়ে নুডলসে ঢেলে দিন।

৬. নেড়েচেড়ে পার্সলে কুচি দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন।

ঈদ সংখ্যা ২০১৮- এর আরো খবর