English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

প্যারিস চুক্তি ছেড়ে গিয়েও নাক গলাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

  • কালের কণ্ঠ ডেস্ক   
  • ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে প্যারিস জলবায়ু চুক্তি নিয়ে জাতিসংঘের আলোচনা চলাকালে গতকাল পরিবেশবাদীদের বিক্ষোভ। ছবি : এএফপি

জলবায়ু পরিবর্তন রোধবিষয়ক প্যারিস চুক্তি থেকে বেরিয়ে গিয়েও এসংক্রান্ত আলোচনায় হস্তক্ষেপ করে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে সপ্তাহব্যাপী জলবায়ু আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের এ নেতিবাচক ভূমিকায় ক্ষুব্ধ পরিবেশবাদীরা।

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে এবং এ পরিবর্তনের শিকার দেশগুলোকে সহায়তা করতে ২০১৫ সালে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে চুক্তি হয়। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত বছর এ চুক্তি থেকে সরে যান। কিন্তু জলবায়ু ইস্যু নিয়ে যেসব আলোচনা চলছে, তাতে এখনো যুক্তরাষ্ট্র হস্তক্ষেপ করে চলেছে। ব্যাংককে চলমান জাতিসংঘের জলবায়ু আলোচনায়ও নাক গলিয়েছে পশ্চিমা দেশটি।

প্যারিস চুক্তি অনুসারে জলবায়ু পরিবর্তনের শিকার দরিদ্র দেশগুলোকে ২০২০ সাল থেকে ১০ হাজার কোটি ডলার বার্ষিক সহায়তা দেওয়ার কথা। এই বিপুল অর্থের জোগান দিতে হবে উন্নত দেশগুলোকে, জলাবায়ু পরিবর্তনের যাদের ভূমিকা সবচেয়ে বেশি। কিন্তু এই তহবিল সংগ্রহ ও বিতরণ পদ্ধতি চূড়ান্ত হয়নি এবং এ বিষয়ে একটি সমঝোতায় পৌঁছানোর চেষ্টা করছে প্যারিস চুক্তি স্বাক্ষরকারী দেশগুলো। ব্যাংকক সম্মেলনে এ বিষয় নিয়ে আলোচনা চলছে, যা আজ রবিবার শেষ হওয়ার কথা।

দরিদ্র দেশগুলোকে সহায়তা প্রদানের ব্যাপারে সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্র প্রস্তাব উত্থাপন করেছে এবং এতে অস্ট্রেলিয়া ও জাপানের সমর্থন রয়েছে। এ প্রস্তাব অনুসারে উন্নত দেশগুলো অর্থ সহায়তা দেওয়ার জন্য বাণিজ্যিক ঋণ প্রদান ও রাষ্ট্রীয় তহবিলকে উৎস হিসেবে ব্যবহারের বিষয়টি বিবেচনায় রাখতে পারবে।

এই যখন পরিস্থিতি, তখন পর্যবেক্ষকরা অভিযোগ করছেন, অর্থ সহায়তার উৎস নির্ধারণে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা প্রকাশে অস্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রসহ বেশ কয়েকটি ধনী দেশ। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র দপ্তর অবশ্য এ ব্যাপারে কোনো মন্তব্য করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছে।

প্যারিস চুক্তি স্বাক্ষরে ভূমিকা পালনকারী এক ঊর্ধ্বতন ব্যক্তিত্ব অভিযোগ করেছেন, চুক্তি বাস্তবায়নের একটা সুস্পষ্ট রূপরেখা নিয়ে যে আলোচনা চলছে, সেটাকে বিষিয়ে তুলছে যুক্তরাষ্ট্র। নাম প্রকাশ না করার শর্তে তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র খেলাটা খেলছে না, অথচ এখনো খেলার নিয়ম-কানুন বানাচ্ছে।

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বিশ্বব্যাপী ঐক্যবদ্ধ কর্মকাণ্ডে নেতৃত্ব দানকারী অ্যাকশনএইডের কর্মকর্তা হরজিৎ সিং বলেন, আলোচনার এ রকম একটা গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে তৎপর হয়ে বাধা সৃষ্টি করছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা। তাঁর অভিযোগ শুধু যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে নয়, ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) বিরুদ্ধেও। তাঁর অভিযোগ, ইউরোপীয় এ জোটসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পক্ষ উন্নয়নশীল দেশগুলোকে সহায়তা করতে ব্যর্থ হয়েছে।

ব্যাংকক সম্মেলনের লক্ষ্য হলো, প্যারিস চুক্তি স্বাক্ষরকারী দেশগুলোর শীর্ষ নেতারা পোল্যান্ডে আগামী ডিসেম্বরে বৈঠকে বসার আগেই যেন বিতর্কিত বিষয়গুলোতে একটা সমঝোতায় পৌঁছানো যায়। চুক্তি বাস্তবায়নে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা বেশ তোড়জোড় চালাচ্ছেন, এটা যেমন সত্যি, তেমনই সত্যি হলো হাতে সময় খুব কমএমন সতর্কবার্তা দিচ্ছেন জলবায়ু বিশেষজ্ঞরা।

সূত্র : এএফপি।

দেশে দেশে- এর আরো খবর