English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

যুক্তরাষ্ট্রের দূতের মন্তব্য

গোলান উপত্যকা ইসরায়েলেরই থাকবে

  • কালের কণ্ঠ ডেস্ক   
  • ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

ইসরায়েলে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ডেভিড ফ্রাইডম্যান মনে করেন বর্ধিত গোলান উপত্যকা ইসরায়েলের অধীনেই থাকবে। গতকাল বৃহস্পতিবার ইসরায়েলের একটি সংবাদপত্রে ফ্রাইডম্যানের প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে এ তথ্য জানা যায়।

১৯৬৭ সালে ছয় দিনের এক যুদ্ধে সিরিয়ার কাছ থেকে ইসরায়েল গোলান উপত্যকা দখল করে নেয়। পরবর্তী সময়ে ইসরায়েল তার দখলকৃত এলাকা বাড়িয়ে নেয়, তবে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় তা কখনো স্বীকৃতি দেয়নি। ইসরায়েলের হায়োম পত্রিকায় প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে ফ্রাইডম্যান বলেন, গোলান উপত্যকা সব সময়ের জন্য ইসরায়েলের অংশ নয়, এটা সত্যিকারভাবে আমি কল্পনাও করতে পারি না। গোলান উপত্যকা সিরিয়ার কাছে ফেরত যাবে, এটাও আমি কল্পনা করতে পারি না। ফ্রাইডম্যান আরো বলেন, গোলান উপত্যকার উঁচু এলাকার অধিকার ত্যাগ করলে তা ইসরায়েলের নিরাপত্তার জন্য সমস্যা হতে পারে।

সাক্ষাৎকারে ফ্রাইডম্যান গোলানকে ইসরায়েলের এলাকা হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির সম্ভাবনার বিষয়টিও উল্লেখ করেছেন। তবে গত আগস্টে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন ইসরায়েল সফরে এমন স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি বলে জানিয়েছিলেন।

ইসরায়েল ও সিরিয়া ২০১১ সাল থেকে ভয়াবহ সংঘর্ষের মধ্যে জড়িয়ে রয়েছে। কৌশলগতভাবে তারা এখনো যুদ্ধের মধ্যে রয়েছে। অতীতে ইসরায়েলের সব সরকার সিরিয়ার কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে বা পরোক্ষভাবে আলোচনা করেছে এবং একতরফা দখল করা জায়গা ১৯৮১ সালের আইন অনুসারে ফেরত দেওয়ার ইঙ্গিতও দিয়েছে। সূত্র : এএফপি।

দেশে দেশে- এর আরো খবর