English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

ব্যাংককে জাতিসংঘ জলবায়ু সম্মেলন শুরু

প্যারিস চুক্তি রক্ষার সময় ফুরিয়ে আসছে

  • কালের কণ্ঠ ডেস্ক   
  • ৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০

জাতিসংঘের জলবায়ু বিশেষজ্ঞরা গতকাল মঙ্গলবার সতর্কতা উচ্চারণ করে বলেছেন, প্যারিস চুক্তি রক্ষার সময় ফুরিয়ে আসছে। তাঁরা আক্ষেপ করে বলেন, ধনী দেশগুলো পরিবেশ রক্ষায় তাদের দায়িত্ব এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। গতকাল থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে জাতিসংঘের পরিবেশবিষয়ক সম্মেলনের উদ্বোধনী দিনে এসব সতর্কতা ও অভিযোগ তোলেন বিশেষজ্ঞরা।

ছয় দিনের সম্মেলনে প্যারিস চুক্তি বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে রুলবুক চূড়ান্ত করা হবে। এখন পর্যন্ত জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলায় প্যারিস চুক্তিই হচ্ছে সবচেয়ে উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা। ১৯৭টি দেশ এই চুক্তিতের সই করে। রুলবুকে এ চুক্তি বাস্তবায়নের দিকনির্দেশনা থাকবে। এ ছাড়া জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে উন্নয়নশীল দেশগুলোকে সহায়তা এবং জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত উল্লেখ থাকবে।

আগামী ডিসেম্বরে পোল্যান্ডে জলবায়ুবিষয়ক শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। এর আগেই যদি সদস্য দেশগুলো ঐকমত্যে পৌঁছাতে না পারে তাহলে প্যারিস চুক্তি ঝুঁকির মুখে পড়বে। পোল্যান্ডের সম্মেলনটি সিওপি২৪ নামে পরিচিত। গতকাল বৈঠক শুরুর সময় সিওপি২৪-এর মনোনীত সভাপতি মাইকেল কুরটিকা বলেন, এই প্রক্রিয়ার বিশ্বাসযোগ্যতা ঝুঁকির মুখে পড়েছে। আমরা তত দ্রুত এগোতে পারছি যতটা আমাদের পক্ষে সম্ভব। আমাদের এখন শক্ত সমাধানের প্রয়োজন।

সংকটের মূল জায়গায় রয়েছে অর্থ। প্যারিস চুক্তিতে ২০২০ সাল থেকে প্রতিবছর গরিব দেশগুলোকে ১০ হাজার কোটি ডলার দেওয়ার কথা ছিল। যে দেশগুলো এরই মধ্যে বন্যা, দাবদাহ, সমুদ্রস্তর বৃদ্ধি এবং অতি শক্তিশালী ঝড়ের মুখে পড়তে শুরু করেছে, তাদের এই সাহায্য দেওয়া হবে। ধনী দেশগুলোর ওপর দীর্ঘ মেয়াদে এই দেশগুলোকে সহায়তা করার জন্য চাপ বাড়ছে।

জাতিসংঘের জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত কমিটির প্যাট্রিসিয়া এসপিনোসা বলেন, এর প্রভাব ভয়াবহ হবে। সবচেয়ে দরিদ্র ও ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা দেশগুলো সবচেয়ে বেশি ভোগান্তির মধ্যে পড়বে। অথচ এই সংকটে তাদের কোনো অবদান নেই। প্যারিস চুক্তিতে বৈশ্বিক তাপমাত্রা বৃদ্ধি বন্ধের কথা বলা হয়েছে এবং সঙ্গে তাপমাত্রা ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমানোর পরিকল্পনাও করা হয়েছে। তবে বর্তমান পরিস্থিতি চলতে থাকলে তাপমাত্রা ৩ ডিগ্রিরও বেশি বাড়বে।

গত বছর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্যারিস চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নেওয়ার ঘোষণা দেন। তিনি বার্ষিক ২০০ কোটি ডলার দিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। পরিবেশবাদীরা গতকাল ব্যাংককের জাতিসংঘ ভবনের সামনে বিক্ষোভ করে। সূত্র : এএফপি।

দেশে দেশে- এর আরো খবর