English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

রোহিঙ্গা নির্যাতন-হত্যা-ধর্ষণের প্রমাণ মিলেছে ফরেনসিক প্রতিবেদনে

  • কালের কণ্ঠ অনলাইন   
  • ৬ জুলাই, ২০১৮ ১৯:০৩

মিয়ানমার সেনাবাহিনী এবং উগ্র বৌদ্ধদের তাণ্ডবে রাখাইন রাজ্য ছেড়ে জীবন বাঁচাতে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা একের পর এক লোমহর্ষক ঘটনার বর্ণনা দিচ্ছিলেন। এবার তাদের গুলি করে হত্যা, আহত, নির্যাতন এবং ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া গেছে ফরেনসিক রিপোর্টে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বাংলাদেশের শরণার্থী শিবিরে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের যে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর সেবা দিয়ে আসছিলেন, তাদের কাছ থেকেই এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

চলতি মাসের শেষের দিকে প্রকাশ করা হবে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা মানবাধিকার চিকিৎসকদের (পিএইচআর) প্রতিবেদন। তবে প্রকাশের পূর্বেই সেটা রয়টার্সের কাছে পৌঁছেছে।

রোহিঙ্গা নিপীড়নের বিরুদ্ধে সারাবিশ্বে আলোড়ন তৈরি হলেও শান্তিতে নোবেল বিজয়ী অং সান সুচি একেবারে নিশ্চুপ থাকার জেরে ব্যাপকভাবে সমালোচিত হন। ওই সময় আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে একের পর এক উঠে আসতে থাকে মিয়ানমার সেনা এবং উগ্র বৌদ্ধদের তাণ্ডবের বর্ণনা।

তবে নির্যাতন ও নিপীড়নের শিকার রোহিঙ্গাদের দেওয়া বর্ণনার পক্ষে এবারই বড় ধরনের দলিল পাওয়া গেল। এর আগে ১৯৯৭ সালে স্থলে মাইন বিস্ফােরণে আহতদের নিয়ে কাজ করে সংস্থাটি অংশীদারের ভিত্তিতে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পায়।

প্রতিবেদনের ব্যাপারে মিয়ানমার সরকার ও সেনাবাহিনী কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয়নি।

রোহিঙ্গা নিধন- এর আরো খবর