English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

'রোহিঙ্গাদের স্থায়ী পুনর্বাসনে পিইউআইসি'র ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ'

  • নিজস্ব প্রতিবেদক   
  • ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৭:৫০

পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন অব দ্য ওআইসি মেম্বার স্টেটস (পিইউআইসি) এর সদস্য রাষ্ট্রসমূহের সংসদে রোহিঙ্গা ইস্যুতে সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, এমপি। তিনি বলেছেন, রোহিঙ্গাদের টেকসই, শান্তিপূর্ণ ও স্থায়ী পুনর্বাসনে পিইউআইসির ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। পিইউআইসি তথা ইসলামী সংহতি এ বিষয়ে কার্যকরী ভূমিকা রাখবে-এটাই বাংলাদেশের প্রত্যাশা।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় সংসদ ভবনের শপথ কক্ষে পিইউআইসির প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময়কালে তিনি এই প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন।

সভায় বাংলাদেশের পক্ষে অংশগ্রহণ করেন ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া, হুইপ মো. শহীদুজ্জামান সরকার, ইকবালুর রহিম ও শাহাব উদ্দিন এবং জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ড. মো. আবদুর রব হাওলাদার। এ ছাড়া বাংলাদেশ সফরে থাকা মরক্কোর ভাইস-প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ কুজাইনের নেতৃত্বে ১৯ সদস্যের প্রতিনিধিদল উপস্থিত ছিলেন।

রোহিঙ্গা সমস্যার টেকসই সমাধানে পিইউআইসির সমর্থনের জন্য প্রতিনিধি দলকে ধন্যবাদ জানান স্পিকার। এ সময় তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মানবতার নব দুয়ার উন্মোচন করেছেন। তিনি (প্রধানমন্ত্রী) জাতিসংঘে সাধারণ পরিষদে এই সংকট সমাধানে যে ৫ দফা প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন। তার ভিত্তিতেই রোহিঙ্গা সমস্যার স্থায়ী সমাধান সম্ভব হবে। এখন ইসলামিক দেশগুলোকে রোহিঙ্গাদের দেশে ফেরত পাঠাতে মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখতে হবে। তিনি যৌথভাবে কর্মকৌশল গ্রহণের উপর গুরুত্বারোপ করেন।

সভায় মোহাম্মদ কুজাইন বলেন, জাতি- ধর্ম-বর্ণের ঊর্ধ্বে মানবতা। মানবতা যাতে লঙ্ঘিত না হয় সেজন্য মুসলিম দেশগুলোকে একসাথে কাজ করতে হবে। বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে যে উদারতা ও মহানুভবতার পরিচয় দিয়েছে সেজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, রোহিঙ্গা সংকটের স্থায়ী সমাধানে পিইউআইসি সবসময় বাংলাদেশের পাশে থাকবে।

এ সময়ে প্রতিনিধি দলের সদস্যরা রোহিঙ্গাদের বাস্তব অবস্থা সরেজমিনে দেখার জন্য কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন বলে স্পিকারকে অবহিত করেন।

জাতীয়- এর আরো খবর