English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

যাদেরকে থাপড়াইতে ইচ্ছে হয়!

  • কালের কণ্ঠ অনলাইন   
  • ১৪ আগস্ট, ২০১৮ ২০:৪৬

প্রথমেই থাপড়াইতে ইচ্ছে হয় ওই সব লোকদের; যারা খুব কাছাকাছি বসে কিংবা দাঁড়িয়ে ওয়াক ওয়াক করে পঁচা-বাশি কফ বের করে কিছুক্ষণ মুখের ভেতর রেখে কোঁত করে গিলে ফেলে!

তারপর থাপড়াইতে ইচ্ছে হয়; যারা সিঁড়ি দিয়ে উঠা কিংবা নামার সময় দুইজন কিংবা তিনজন পাশাপাশি হাঁটে, অপ্রয়োজনীয় গল্প করে। পেছনের মানুষদের কোনো পরোয়াই করে না তাদের!

এরপর যারা ফুটওভার ব্রিজের নিচ দিয়ে নিজেদের ছোট্ট বাচ্চাদের নিয়ে চলাফেরা করেন তাদের থাপড়াইতে ইচ্ছে হয়! শালারা নিজেরা তো ডিসিপ্লিন মানবেই না ছোট্ট বাচ্চাদেরও শেখাবে না।

যারা গণপরিবহনের মধ্যে ধূমপান করে তাদেরকেও থাপড়াইতে ইচ্ছে হয়। মনে হয় থাপড়াইয়া গাড়ি থেকেই ফেলে দিই!

থাপড়াইতে ইচ্ছে হয়; যারা ফুটপাতজুড়ে দাঁড়িয়ে আড্ডা দেয়। পথচারীদের কোনো তোয়াক্কাই করে না।

থাপড়াইতে ইচ্ছে হয় যারা কথা দিয়া কথা রাখে না তাদেরকে। দেখা করতে চেয়ে দেখা করে না, টাকা ধার নিয়ে কিংবা বই পড়তে নিয়ে আর ফেরত না দেয় না তাদেরকেও।

সব শেষে থাপড়াইতে ইচ্ছে হয়; যারা ফেসবুকে অযথাই ট্যাগ করে, ইনবক্সে অপ্রয়োজনীয় উপদেশ কিংবা গুজবের ফটো-টেক্সট পাঠায় তাদেরকে।

আপনারও কি হয়?

গণমাধ্যমকর্মী আনিসুর বুলবুলের ফেসবুক থেকে

(নাগরিক মন্তব্য বিভাগে প্রকাশিত লেখা ও মন্তব্যের দায় একান্তই সংশ্লিষ্ট লেখক বা মন্তব্যকারীর, কালের কণ্ঠ কর্তৃপক্ষ এজন্য কোনোভাবেই দায়ী নন।)

নাগরিক মন্তব্য- এর আরো খবর