English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

রক্তে ভেজা স্কুল ইউনিফর্ম...

  • কালের কণ্ঠ অনলাইন   
  • ৫ আগস্ট, ২০১৮ ২১:০৮

বয়স ১৫-১৬ হবে। ছেলেটি বসে আছে রিক্সায়। তাকে জড়িয়ে ধরে আছে আরও একজন। কারণ ছেলেটি মারাত্মকভাবে আহত। তাকে পশুর মতো পেটানো হয়েছে। ছেলেটির অপরাধ, সে তার বন্ধুদের সঙ্গে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন করছে। সে ও তার বন্ধুরা মিলে রাজধানীর রাজপথে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে এনেছে। খুব বাজে কাজ করেছে নিশ্চয়ই!

আমরা সুশৃঙ্খল জাতি নই। আমার বিশৃঙ্খলা ভালোবাসি। আমরা যা হয়নি তা নিয়ে গুজব ছড়াতে ভালোবাসি। আবার সত্য ঘটনাকেও গুজব বলে উড়িয়ে দিতে ভালোবাসি। নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর চলছে একের পর এক হামলা। আজ রবিবারও আবারও শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এই উত্তেজনাকর পরিস্থিতির জেরে আজও হাজার হাজার শিক্ষার্থী নেমেছে রাস্তায়। সোশ্যাল সাইটে আমরা দেখেছি আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের রক্তাক্ত ছবি। তাদের কারও চোখে আঘাত লেগেছে, কারও মাথা ফেটে গেছে, কারও হাত এবং সারা শরীর রক্তাক্ত! স্কুল-কলেজের ছোট ছোট এসব শিক্ষার্থীদের ওপর এমন বীভৎস হামলায় শিউরে উঠেছে দেশবাসী। খুব প্রয়োজন ছিল এসবের?

জিগাতলায় সংঘর্ষের সময় কয়েকজন হেলমেট পরা বুড়ো বুড়ো সন্ত্রাসী পিস্তল বের করে গুলি করেছে। তারা লাঠি, লোহার রড দিয়ে আক্রমণ করেছে শিক্ষার্থীদের ওপর। এসবের ভিডিও ফুটেজ এসেছে গণমাধ্যমের হাতে। তবে আন্দোলন দমানো যায়নি। আজ রবিবারও হাজার হাজার শিক্ষার্থী রাস্তায় নেমে এসেছে। আগের মতোই তারা সুশৃঙ্খলভাবে সড়ক পরিচলানা করছে। দাবির স্বপক্ষে স্লোগান দিচ্ছে।

১৮ বছরকে দমানো খুব কঠিন; বলতে গেলে অসম্ভব!

নাগরিক মন্তব্য- এর আরো খবর