English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

প্রথমবারের মতো সেনাবাহিনীতে কুকুরের পরিবর্তে বেজি

  • কালের কণ্ঠ অনলাইন   
  • ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৬:৫৩

যেকোনো বিস্ফোরক খুঁজতে নিরাপত্তা বাহিনীর কর্মীদের সঙ্গে সমান দক্ষতায় কাজ করে অসংখ্য স্নিফার ডগ। তবে শ্রীলঙ্কার সেনাবাহিনী বিস্ফোরক উদ্ধারে কুকুরের পরিবর্তে বেজি ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিশ্বের প্রথম কোনো দেশের সেনাবাহিনী হিসেবে এই সিদ্ধান্ত তাদের।

দেশটির সেনা কর্মকর্তারা বলেছেন, মাইন এবং বিস্ফোরক খোঁজার কাজে পারদর্শী বেজি। এদের ঘ্রানশক্তি কুকুরের থেকে কোনো অংশে কম নয়। কিছু কিছু ক্ষেত্রে বেজি কিন্তু কুকুরকেও টেক্কা দিতে পারে। আর এটা প্রমাণিত।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজ জানিয়েছে, লঙ্কান সামরিক বাহিনীতে আপাতত দুটি বেজিকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ চলছে। বিভিন্ন রকম বিস্ফোরকের গন্ধ শুকিয়ে তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে।

সেনা কর্মকর্তাদের দাবি, বিদেশ থেকে আনা দামী কুকুরের থেকে অনেক ক্ষেত্রে দেশি বেজি বেশি কার্যকর। তবে এক্ষেত্রে সঠিক প্রশিক্ষণের প্রয়োজন। বেজিদের প্রশিক্ষণ দেয়ার জন্য তারা বিশেষভাবে কয়েকজনকে দায়িত্ব দিয়েছেন। মাটি থেকে এক মিটার উপরে লুকানো কোনো বিস্ফোরক খুঁজে বের করতে পারে এই প্রাণী। বেজিকে প্রশিক্ষণ দিতে ৬ মাসের মতো সময় লাগে।

বিবিধ- এর আরো খবর