English

অনলাইন

আজকের পত্রিকা

ফিচার

সম্পাদকীয়

বুধবার জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় শুনানি কারা আদালতে

  • নিজস্ব প্রতিবেদক   
  • ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:১৮

খালেদা জিয়া। ফাইল ছবি

বিএনপি চেয়ারপারসন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাভ্যন্তরের আদালতে শুনানির জন্য কাল বুধবার দিন ধার্য রয়েছে। বুধবার আদালতে খালেদা জিয়া হাজির হবেন কীনা সেটা নির্ভর করছে কারা কর্তৃপক্ষের ওপর। তবে তার আইনজীবীরা আদালতে যাবেন কীনা সে বিষয়ে বুধবার সকালে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের সিদ্ধান্ত জানার পরই খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা ঠিক করবেন। এ জন্য বুধবার সকালে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন বলে আইনজীবীদের এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বৈঠকের বিষয়ে সাবেক আইনমন্ত্রী ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ ও অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া আজ মঙ্গলবার পৃথকভাবে সাংবাদিকদের জানান, আগামীকাল বুধবার সকালে আইনজীবীরা আবার বৈঠকে বসবেন। সেই বৈঠকেই সিদ্ধান্ত হবে তারা কারাভ্যন্তরের আদালতে যাবেন কীনা। শারীরিক অসুস্থতার কারণে খালেদা জিয়ার আদালতে উপস্থিত হতে অসুবিধার কথা বলে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় নাজিম উদ্দিন রোডের পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রশাসনিক ভবনের ৭ নম্বর কক্ষকে আদালত হিসেবে ঘোষণা করে গত ৪ সেপ্টেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে আইন মন্ত্রণালয়। এরপর দিন ৫ সেপ্টেম্বর এই আদালতে খালেদা জিয়াসহ কারাবন্দি অপরাপর আসামিদের হাজির করে। তবে খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা আদালতে যাননি। আর খালেদা জিয়াও আদালতকে জানিয়ে দেন যে তার পক্ষে বারবার আসা সম্ভব নয়। এ অবস্থায় গত ৯ সেপ্টেম্বর খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তারা প্রধান বিচারপতিকে দেওয়া একটি লিখিত আবেদনে কারাগারের ওই আদালতের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারে পদক্ষেপ নেওয়ার আহবান জানান। এই আদালত বসানো বেআইনি দাবি করে এ আবেদন জানানো হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, সেদিনই প্রধান বিচারপতি আইনজীবীদের জানিয়ে দিয়েছেন যে সরকারের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে তিনি ব্যক্তিগতভাবে কোনো হস্তক্ষেপ করবেন না। তবে আইনগতভাবে যতটুকু করা যায় সে বিষয়ে আইনজীবীদের আশ্বস্ত করেন। এ অবস্থায় আজ মঙ্গলভার বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি ভবনে এক বৈঠক করেন খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। সেখানে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, খন্দকার মাহবুব হোসেন, এ জে মোহাম্মদ আলী, জয়নুল আবেদীন, ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন, সানাউল্লাহ মিয়া, মাসুদ আহমেদ তালুকদার, কায়সার কামাল, আমিনুল ইসলাম, এ কে এম এহসানুর রহমানসহ সিনিয়র-জুনিয়র আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, এ বৈঠক থেকেই আজ সকালে প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাতের সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রধান বিচারপতির সঙ্গে সাক্ষাতের পর নিজেরা আবার বৈঠকে বসবেন। গত ৯ সেপ্টেম্বর প্রধান বিচারপতির কাছে দেওয়া আবেদনের বিষয়ে প্রধান বিচারপতির সিদ্ধান্ত জানার পর তারা সিদ্ধান্ত নেবেন কারাভ্যন্তরের আদালতে যাবেন কীনা?

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৫ বছরের সাজা হওয়ায় গত ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে খালেদা জিয়া কারাগারে রয়েছেন। তাকে নাজিম উদ্দিন রোডে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের পুরাতন ভবনে রাখা হয়েছে।

আইন-আদালত- এর আরো খবর